সউদী ওহাবী ইহুদী সরকার চাঁদ দেখে পবিত্র যিলহজ্জ শরীফ মাস ঘোষণা করলো কিনা এ ব্যাপারে সকলকেই সজাগ দৃষ্টি রাখতে


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, صوموا لرؤيته وافطروا لرؤيته অর্থাৎ- “তোমরা চাঁদ দেখে রোযা রাখো, চাঁদ দেখে ঈদ করো।” এ পবিত্র হাদীছ শরীফ দ্বারা সাব্যস্ত হয় যে, প্রতি আরবী মাসের ২৯ তারিখে চাঁদ তালাশ করা ওয়াজিবে কিফায়া। অর্থাৎ 

আহলু বাইত শরীফ বিরুধীতার জবাব ৫:


৫. আজকে তুমি রাষ্ট্রপতি হয়েছো। তুমি প্রধানমন্ত্রী হয়েছো। তুমি মন্ত্রী হয়েছো। তুমি প্রভাবশালী নেতা দাবী করছো। করো এতে কোন সমস্যা নেই। যখন তোমার বাবা-মা, দাদা-দাদী ও পরিবার নিয়ে যখন কেউ ঠাট্টা বিদ্রুপ করে তখন কি তুমি চুপ করে বসে থাকো? তুমি 

হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা সকল সচ্ছলতার মালিক- একটি আকলী দলিল


  একদিন হযরত রাবেয়া বসরী রহমতুল্লাহি আলাইহা উনার কাছে দু’জন দরবেশ এলেন। মেহমানদারী করারও প্রয়োজন কিন্তু ঘরে ছিল মাত্র ২টা রুটি। তিনি দু’জন দরবেশকে তা পরিবেশনও করলেন। উনারা যখন খাদ্য গ্রহণ করতে যাবেন, তখন একজন সুওয়ালকারী বা ভিক্ষুক এলো। তিনি দরবেশ 

পবিত্র হজ্জ নিয়ে ষড়যন্ত্র ও বিভ্রান্তি মুসলমান উনাদেরকেই রুখে দিতে হবে, প্রয়োজনে নিয়োজিত করতে হবে সর্বশক্তি 


=>কেউ কেউ নিজ থেকে আবার কেউ বা অন্যের প্ররোচনায় পড়ে পবিত্র হজ্জ উনার কোনো অংশ নয় মনে করে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র রওজা শরীফ যিয়ারত করা থেকে বিরত থাকে- যা কাট্টা কুফরী চরম ধৃষ্টতা, 

সউদী ওহাবী ইহুদী সরকার চাঁদ দেখে পবিত্র যিলহজ্জ শরীফ মাস ঘোষণা করলো কিনা এ ব্যাপারে সকলকেই সজাগ দৃষ্টি রাখতে


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, صوموا لرؤيته وافطروا لرؤيته অর্থাৎ- “তোমরা চাঁদ দেখে রোযা রাখো, চাঁদ দেখে ঈদ করো।” এ পবিত্র হাদীছ শরীফ দ্বারা সাব্যস্ত হয় যে, প্রতি আরবী মাসের ২৯ তারিখে চাঁদ তালাশ করা ওয়াজিবে কিফায়া। অর্থাৎ 

পবিত্র কুরবানিকে অস্বীকার করা যেমন কুফরি, ইহানত করাও তেমনি কুফরি


তথাকথিত তারকারা বলেছে, “কুরবানী না দিয়ে টাকাটা বন্যার্তদের দান করতে”। নাউযুবিল্লাহ। তাদের উপর কি অহী নাযিল হয়, যে তারা মহান আল্লাহ পাক যে ইবাদতকে ওয়াজিব করেছেন সেটা বদলে অন্য ইবাদত করতে বলে??? যারা এখন কুরবানীর বিরোধিতা করে কথিত মানবতাবাদী সাজছে তারা 

মালউন কা বাচ্চা, কভি ন্যাহি সাচ্চা


সংসদকে নির্দেশ দেয়ার ক্ষমতা সুপ্রিম কোর্টের নেই: এস.কে সিনহা বিরাগের বশবর্তী হয়ে রায় দিয়েছে -খায়রুল আইন কমিশনের চেয়ারম্যান ও প্রাক্তন প্রধান বিচারক এবিএম খায়রুল হক আবারো বলেছেন, ‘প্রধান বিচারক এস.কে সিনহা সে বিরাগের বশবর্তী হয়ে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় দিয়েছে।’ 

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি সমস্ত উম্মত উনাদের পক্ষ থেকে পবিত্র কুরবানী মুবারক করেছেন।


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- عن حضرت عائشة صديقة عليها السلام ان رسول الله صلى الله عليه وسلم امر بكبشين اقرن يطآ فى سواد ويبرك فى سواد وينظر فى سواد فاتي به ليضحى به قال يا عائشة عليها 

এটাই কি ছিল সরকারের ওয়াদা যার ফলশ্রুতিতে সে এখন সম্মানিত শরীয়ত উনার প্রতিটি বিষয় এমনকি সম্মানিত কুরবানী উনার ক্ষেত্রেও


যে ব্যক্তি নফসের অনুসরণ করত পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র সুন্নাহ শরীফ বিরোধী আইন প্রনয়ন করবে অর্থাৎ সম্মানিত শরীয়ত উনার সীমা লঙ্ঘণ করে পবিত্র কুরআন শরীফ, পবিত্র সুন্নাহ শরীফ বহির্ভুত নতুন আইন জারী করবে পরকালে মহান আল্লাহ পাক তিনি তাকে কঠিনভাবে পাকড়াও 

যুগে যুগে উলামায়ে ‘সূ’রা পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার চরম ক্ষতি করেছে


শের শাহ শূরীর নিকট পরাজিত সম্রাট আকবরের পিতা সম্রাট হুমায়ূন যখন সপরিবারে পলায়ন করছিল, তখন বর্তমান পাকিস্তানের অমরকোটে এক রাজপ্রাসাদে আকবরের জন্ম। প্রথম জীবনে লেখাপড়ার সুযোগ না পেলেও বৈরাম খাঁর নিকট যুদ্ধ বিদ্যায় হাতেখড়ি তার। অপরিণত বয়সেই তাকে সাম্রাজ্যের দায়িত্ব নিতে 

আহলু বাইত শরীফ বিরুধীতার জবাব ৪.


৪. ওহে ঈমানদারগণ তোমরা কোথায়? ওহে মুসলমানরা তোমরা কোথায়? ওহে বীরের জাতিরা তোমরা কি ঘুমিয়ে পড়েছ? তোমরা কেউ কি কাফের মুশরিকদের নিকট মাথা নত করেছ? তোমরাতো ঘুমাবার জাতি নও? তোমরাতো মাথা নত করিবার জাতি নও? তাহলে আজ কেন আমাদের নবীজির শানে 

আহলু বাইত শরীফ বিরুধীতার জবাব ৩.


৩. আপনি রাজা হউন বা বাদশা হউন, আমি চাকুরীজীবি, ব্যবসায়ী, ছাত্র, কৃষিজীবি বা সাধারণ যে কোন ব্যক্তিই হইনা কেন, আপনি যদি মমিন, মুসলমান, ঈমানদার ও জান্নাতি হতে চান? আল্লাহ পাক উনার আযাব গজব থেকে মুক্তি পেতে চান? তাহলে অবশ্যই আপনাকে ইসলামের