পবিত্র রাজারবাগ শরীফ উনার মাঝে শুরু হলো ৬৩ দিনব্যাপী পবিত্র সাইয়্যিদুল আইয়াদ শরীফ মাহফিল ।


সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, সাইয়্যিদে ঈদে আকবর, পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার সম্মানার্থে অনন্তকালব্যাপী মাহফিল অনুষ্ঠিত  হচ্ছে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে ৬৩ দিন ব্যাপী মাহফিল শুরু হয়েছে আজ থেকে। এই মাহফিল উনার ওয়াজ শরীফ, কালামুল্লাহ শরীফ তেলওয়াত, হামদ শরীফ, না’ত শরীফ, ক্বাছিদা শরীফ ,

রাজারবাগ দরবার শরীফে পৃথিবীর ইতিহাসে এই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে সারা বছর তথা আজীবনব্যাপী সম্মানিত সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার সম্মানিত মাহফিল মুবারক উনার ইন্তিযাম। সুবহানাল্লাহ!


মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুল খুলাফা মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ ছলাতু ওয়াস সালাম উনার সর্বকালের, সর্বযুগের, সর্বশ্রেষ্ঠ, অভূতপূর্ব, বেমেছাল, সুমহান তাজদীদ মুবারক ‘হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা ২৪ ঘণ্টা তথা দায়িমীভাবে সারা জীবন সম্মানিত সাইয়্যিদুল

“আস সাফফাহ” লক্বব বা উপাধী ব্যবহার করা প্রসঙ্গে মিথ্যাবাদীদের জবাব


“আস সাফফাহ” মুবারক লক্ববের প্রায় ৩০ প্রকার অর্থ বিভিন্ন অভিধানে উল্লেখ আছে। মিথ্যা প্রোপাগান্ডাকারীরা উক্ত ৩০ প্রকারের অন্য অর্থগুলো উদ্দেশ্যে প্রোনদিত ভাবে আড়াল করে গেছে। কিন্তু সে আড়াল করলে কি হবে তার মিথ্যার মুখোশ উম্মোচন করার লক্ষ্যে ইনশাআল্লাহ এই লক্বব মুবারকের

দজ্জালে কাযযাবদের মিথ্যাচারীতার ও ঘৃন্য তোহমতমূলক অপবাদের দাঁতভাঙ্গা জবাব- পর্ব (২)


প্রথম পর্বের পর:………………………. (১৫) তাদের অমুসলিম বিদ্বেষ দেখার মত : বিধর্মীরা মুসলমানের শত্রু এটা আল্লাহ পাক কুরআন শরীফে অনেকবার বলেছেন। এই বিধর্মী কাফিররা সাড়া পৃথিবীতে পাইকারী হারে মুসলমান নারী পুরুষ দের শহীদ করছে, কুরআন শরীফ জ্বালিয়ে দিচ্ছে, মসজিদ ভেঙ্গে আস্তাবল এবং

দজ্জালে কাযযাবদের মিথ্যাচারীতার ও ঘৃন্যতোহমতমূলক অপবাদের দাঁতভাঙ্গা জবাব- পর্ব (১)


আপনারা জানেন আখেরী জামানায় অনেক মিথ্যাবাদী দাজ্জালের চেলা বের হবে, এরা মিথ্যা, মনগড়া, বিভ্রান্তিকর, ও দলীলবিহীন বক্তব্য প্রদান করে সমাজে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করবে। তাদের কাজ হচ্ছে কুরআন সুন্নাহ বিরোধী কুফরীমূলক বক্তব্য প্রচার করে জনসাধারণের ঈমান বিনষ্ট করা এবং মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে

পৃথিবীর ইতিহাসে একমাত্র ব্যক্তিত্ব যিনি ……………………..


(নিচের পোস্টের বিষয়বস্তুর সাথে হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম ও হযরত সাহাবায়ে কিরাম রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা তুলনার বিষয় নয়। উনারা উম্মতের সাথে তুলনীয় নয়।) =>পৃথিবীর ইতিহাসে উল্লেখযোগ্য একমাত্র ব্যক্তিত্ব যিনি এ যামানায় সম্ভব সকল সুন্নত পালন করে থাকেন। => পৃথিবীর ইতিহাসে

ধর্মব্যবসায়ীদের মিথ্যা তোহমত ও বিকৃত উদ্দেশ্য সাধনের কুট চক্রান্তের সমুচিত জবাব। (দ্বিতীয় পর্ব)


=>ইসলামে আলাইহিস সালাম শুধু নবী ও রাসূল দ. গণকে বলা হয়। কোন সাহাবা রা. কেও আলাইহিস সালাম বলা হয় না। শিয়া মতবাদে বারোজন ইমামকে আলাইহিস সালাম বলা হলেও তারা ইতোমধ্যে চলে গেছেন। অভিযোগকারীর এ অভিযোগের জবাবে ঠান্ডা মাথায় বলছি যে, আলাইহিস

ধর্মব্যবসায়ীদের মিথ্যা তোহমত ও বিকৃত উদ্দেশ্য সাধনের কুট চক্রান্তের সমুচিত জবাব। (প্রথম পর্ব)


বদ ও বাতিল আক্বীদাপন্থীদের এক ভাড়াটের বিকৃত বক্তব্যের জবাব। নামক এক রেজাখানী অভিযোগকারীর অভিযোগ হলো- রাজারবাগীদের মানসিক সমস্যা আছে। রাজারবাগীরা কুরআন শরীফ মুতাবিক ফরজ পর্দা করার জন্য আপ্রান চেষ্টা করে- এটা কি মানসিক সমস্যা? রাজারবাগীরা হারাম ছবি তোলার ব্যাপারে পবিত্র হাদীস

সামাজিক অবক্ষয় রোধে তরুণ প্রজন্মের করণীয়


সামাজিক অবক্ষয় রোধে তরুণ প্রজন্মের করণীয় বর্তমানে আমাদের পরিবার ও সমাজে নৈতিকতা বিবর্জিত কার্যকলাপ যে হারে বৃদ্ধি পেয়েছে তা খুবই উদ্বেগজনক। নৈতিকতাহীন কার্যকলাপের এই ভয়াবহ মহামারী থেকে সমাজকে রক্ষা করতে তরুণদের কিছু করণীয় সম্পর্কে আলোচনা করা হলো। ১. নিজেকে মানুষ হিসেবে কি

পবিত্র ছফর মাস উনার চাঁদ দেখা যায়নি ॥ * আগামী ২৩ ছফর ১৪৩৬ হিজরী হিসেবে আগামী ১৮ সাবি’ ১৩৮২ শামসী, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৪ ঈসায়ী পালিত হবে- ‘পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ’


* আর পবিত্র ২৮ ছফর শরীফ (২৩ সাবি’ ১৩৮২ শামসী, ২২ ডিসেম্বর ২০১৪ ঈসায়ী) সাইয়্যিদুনা ইমামুছ ছানী মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার এবং দ্বিতীয় সহস্রাব্দের মহান মুজাদ্দিদ হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনাদের পবিত্র বিছাল শরীফ

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র বিলাদত শরীফ উপলক্ষে ঈদ পালন করা বা খুশি প্রকাশ করা সকলের জন্য ফরয


” নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে পাওয়ার কারণে তোমাদের উচিত খুশি প্রকাশ করা (পবিত্র সূরা ইউনুস শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ৫৭-৫৮) ” এখানে মহান আল্লাহ পাক আদেশ দান করেছেন। ফিক্বাহর সমস্ত কিতাবে উল্লেখ আছে যে,

ছফর মাস ও সংক্রামক রোগ সংক্রান্ত কুফরী আক্বীদা


মহান আল্লাহ পাক ইরশাদ করেন, “তোমরা আল্লাহ পাক-এর সাথে কোন কিছুকে শরীক করো না।” (সূরা লুকমান ১৩) হাদীছ শরীফ-এ ইরশাদ হয়েছে, অশুভ বা কুলক্ষণ বলতে কিছু রয়েছে, ছোঁয়াচে রোগ বলতে কোন রোগ রয়েছে, পেঁচা ও ছফর মাসের মধ্যে অশুভ ও খারাবী

নিজেরা অসভ্য, বর্বর, পশুর মতো না হলে হিন্দু সম্প্রদায়ের দালালি করবে কিভাবে? আবুল মকসুদ, রুবায়েত ফেরদৌস গং কী এদেশে হিন্দু অসভ্যতা প্রতিষ্ঠিত করতে চায়?


গত ২৭ নভেম্বর ২০১৪ ঈ. তারিখ সোমবার শরীফ ঢাকার ডেইলি স্টার ভবনে এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে সমবেত হয় দেশের অবশিষ্ট কুশীল সমাজ, সাংবাদিক, শিক্ষক ছুরতের কয়েকজন ভারতীয় গোয়েন্দা, দালালসহ ইসলামবিদ্বেষী, সমকামী, পতিতা ও হিজরাদের প্রতিনিধি ব্যক্তিত্ব। তারা মিডিয়া আমন্ত্রণ করে

সেনাবাহিনী বিরোধীরা দেশ বিরোধী, তাদের কথায় কর্ণপাত না করে সেনা সদস্য ও পরিধি বাড়াতে হবে, প্রতিটি জেলায় সেনানিবাস করতে হবে


বাংলাদেশে সেনাবাহিনী দেশের সার্বিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে, দুর্যোগে, দুর্দিনে দেশের মানুষের পাশে এসে দাঁড়ায়। আমলাতান্ত্রিক প্রশাসন যেখানে ব্যর্থ সেখানেই সেনাবাহিনীকে নিয়োজিত করে কার্যকর সুফল লাভ করেছে শাসকরা। শুধু দেশে নয় বিদেশের মাটিতেও শান্তি রক্ষা মিশনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নজিরবিহীন প্রশংসিত। কিন্তু দেশ রক্ষার