মহান স্বাধীনতা দিবস স্মরণে


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, ‘মাতৃভূমির মুহব্বত পবিত্র ঈমান উনার অঙ্গ।’ আজ মহান স্বাধীনতা দিবস। মাতৃভূমির স্বাধীনতার জন্য যে সকল মুসলমান প্রাণ দিয়েছেন, তাঁদের জন্য সম্মানিত শরয়ী তর্য-তরীক্বা মুতাবিক, যেমন- পবিত্র কুরআন শরীফ খতম, পবিত্র মীলাদ শরীফ, পবিত্র

রাজারবাগ দরবার শরীফে পৃথিবীর ইতিহাসে এই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে সারা বছর তথা আজীবনব্যাপী সম্মানিত সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার সম্মানিত মাহফিল মুবারক উনার ইন্তিযাম। সুবহানাল্লাহ!


মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুল খুলাফা মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ ছলাতু ওয়াস সালাম উনার সর্বকালের, সর্বযুগের, সর্বশ্রেষ্ঠ, অভূতপূর্ব, বেমেছাল, সুমহান তাজদীদ মুবারক ‘হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা ২৪ ঘণ্টা তথা দায়িমীভাবে সারা জীবন সম্মানিত সাইয়্যিদুল

মুসলমান উনাদের চির শত্রু যারা————–


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ﺃ ﻳٰﺎَﻳُّﻬَﺎ ﺍﻟَّﺬِﻳﻦَ ﺁﻣَﻨُﻮﺍ ﻻ ﺗَﺘَّﺨِﺬُﻭﺍ ﺑِﻄَﺎﻧَﺔً ﻣِّﻦ ﺩُﻭﻧِﻜُﻢْ ﻻ ﻳَﺄْﻟُﻮﻧَﻜُﻢْ ﺧَﺒَﺎﻻ ﻭَﺩُّﻭﺍ ﻣَﺎ ﻋَﻨِﺘُّﻢْ ﻗَﺪْ ﺑَﺪَﺕِ ﺍﻟْﺒَﻐْﻀَﺎﺀُ ﻣِﻦْ ﺃَﻓْﻮَﺍﻫِﻬِﻢْ ﻭَﻣَﺎ ﺗُﺨْﻔِﻲ ﺻُﺪُﻭﺭُﻫُﻢْ ﺃَﻛْﺒَﺮُ ﻗَﺪْ ﺑَﻴَّﻨَّﺎ ﻟَﻜُﻢُ ﺍﻟْﺂﻳَﺎﺕِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﺗَﻌْﻘِﻠُﻮﻥَ অর্থ: হে মু’মিনগণ!

মাসিক আল বাইয়্যিনাত শরীফ উনার খুছুছিয়াত বা বৈশিষ্টঃ


‘মাসিক আল বাইয়্যিনাত’ পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ-এর ঊনসত্তরটি আয়াত শরীফ-এর মধ্যে ‘আল বাইয়্যিনাত’ শব্দটি পঁয়ত্রিশ বার, ‘বাইয়্যিনাত’ শব্দটি সতর বার, ‘আল বাইয়্যিনাহ্’ শব্দটি দু’বার, ‘বাইয়্যিনাহ্’ শব্দটি সতর বার, সর্বমোট একাত্তর বার ব্যবহৃত হয়েছে। কুরআন শরীফ-এর ১১৪ খানা সূরার মধ্যে ৯৮ নং সূরার

সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ হযরত ফাতিমাতুয যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি বেহেশতবাসিনী মেয়েগণের সাইয়্যিদা।


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে, “সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ হযরত ফাতিমাতুয যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি বেহেশতবাসিনী মেয়েগণের সাইয়্যিদা ।” নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আরো বলেন, “হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম তিনি আমার দেহ মুবারক

আজ মহান স্বাধীনতা দিবস।


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, ‘মাতৃভূমির মুহব্বত পবিত্র ঈমান উনার অঙ্গ।’ আজ মহান স্বাধীনতা দিবস। মাতৃভূমির স্বাধীনতার জন্য যে সকল মুসলমান প্রাণ দিয়েছেন, তাঁদের জন্য সম্মানিত শরয়ী তর্য-তরীক্বা মুতাবিক, যেমন- পবিত্র কুরআন শরীফ খতম, পবিত্র মীলাদ শরীফ, পবিত্র

“BASIC HISTORY OF APRIL FOOL”


April Fool is pleasant day for the disbeliever(Kafir),but this day is pathetic/painful for Muslims.For not hearing the basic history of this day,all Muslims celebrate this day with funny amusement.Everyone should know the basic history of 1st April. THE BASIC HISTORY OF APRIL FOOL

হেজাজুল আরব থেকে সৌদি আরব এর সঠিক ইতিহাস বিস্তারিত জানুন


বর্তমান এই যুগে আরব বলতে আমরা উপলব্ধি করতে পারি মুসলিম জাহানের ঐতিহাসিক স্থান ও ইসলামের প্রাণকেন্দ্র মক্কাতুল মুয়াজ্জামা,এটি পূর্বে বাক্কা নামে প্রসিদ্ধ ছিল। মহান আল্লাহ তা’লা তার ঐশীগ্রন্থ কুরআনে পাকে ঐ স্থানকে “উম্মুল কুরা” তথা “আদি নগর” হিসেবে অবহিত করেছেন, এই

‘সৌদিআরব’ নামের উৎস ও ইহুদিরাষ্ট্র ইসরাইল গঠনে সৌদি রাজবংশের ভূমিকা


১৯৩২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর সাম্রাজ্যবাদী ব্রিটিশ সরকারের অনুচর ও সেবাদাস আবদুল আজিজ ইবনে সৌদ ব্রিটেনের অনুমতি নিয়ে হিজাজের নাম পরিবর্তন করে নিজ বংশের নাম অনুযায়ী এই বিশাল আরব ভূখণ্ডের নাম রাখে সৌদি আরব। রক্তপাত, গণহত্যা ও প্রতারণার মাধ্যমে ইবনে সৌদ দখল

হারাম


আপনি কি জানেন- ১লা বৈশাখে অঙ্কিত বিভিন্ন পশুপাখির চিত্রগুলো কিসের প্রতীক? দৈনিক আল ইহসান শরীফ পত্রিকায় লেখালেখির কারণে এখন এর পাঠকমাত্রই বুঝতে পারেন ১লা বৈশাখের নামে যে অনুষ্ঠান করা হয় সেটি ১০০ ভাগ হিন্দুয়ানী অনুষ্ঠান। কিন্তু এরপরও ১লা বৈশাখ পালনকারীরা একে

দোষ


মানুষে বলে আর কতটুকু তার চেয়েও দোষ আমার বেশি প্রকাশ হয় উহা যতটুকু বাতিনে তুলনায় রাশি রাশি। ভালো বলে কিছু নেই আমার জীবনে আমল পরপারে হই নিঃস্ব আমি নেই কোনো সম্বল। আহ! আফসুস আর পরিতাপ আমার জীবন তরে নফসের সাথে পারি

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ওহাবী-খারিজীদের ছল-চাতুরী করে বাহাছ থেকে পলায়ন ॥ পবিত্র মীলাদ শরীফ ও ক্বিয়াম শরীফ বিরোধী ও অপপ্রচারকারীদের প্রতি- আবারো ১০০ কোটি টাকার চ্যালেঞ্জ ঘোষণা


গত ০২-০১-২০১৫ ঈসায়ী তারিখে কুড়িগ্রাম জেলার অন্তর্গত চিলমারী উপজেলার থানাহাট বাজার জামে মসজিদে জুমুয়ার নামাযে খুতবাপূর্ব বক্তব্যে ওহাবী-খারিজীপন্থী ইমাম বলে যে, “১. “ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১২ই রবীউল আউওয়াল শরীফ) উপলক্ষে শুধুমাত্র একদিন রোযা রাখা ব্যতীত আরো কোনো

শুল্ক সুবিধার অপব্যবহার, ধ্বংসের মুখে দেশীয় কাগজ শিল্প। দেশী কাগজ উদ্বৃত্ত, তবুও আমদানি অবারিত। কাগজ শিল্প রক্ষায় আমদানি নিয়ন্ত্রণ জরুরী।


সব প্রশংসা মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি অফুরন্ত দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক। শিল্পে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে সরকার যখন দেশীয় কাগজশিল্পের উদ্যোক্তাদের এগিয়ে আসার আহ্বান