অত্যন্ত আশ্চার্য দু:খ আর পরিতাপের বিষয়-


রাস্ট্রধর্ম থেকে ইসলাম তুলে দেয়ার জন্য যারা কোর্টে রিট করেছিল তাদের ১৫ জনের মধ্যে ১৩ জনই তথাকথিত মুসলমান। হায়রে দেশ হায়রে জাতী হায়রে মুসলিম সমাজ!!! ১৫ জনের ১৩ জনই তথাকথিত মুসলমান!!! বাকি ২ জন হিন্দু ১৯৮৮ সালে সংবিধানের অষ্টম সংশোধনীর মাধ্যমে সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে ইসলামকে সংযুক্ত করেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সংবিধানে ২ক অনুচ্ছেদ যুক্ত করে বলা হয়, “প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রধর্ম হবে ইসলাম, তবে অন্যান্য ধর্মও প্রজাতন্ত্রে শান্তিতে পালন করা যাবে।” ওই সময় স্বৈরাচার ও সাম্প্রদায়িকতা প্রতিরোধ কমিটির পক্ষে রাষ্ট্রধর্মের ওই বিধানের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেছিল ১৫ জন ব্যক্তি। তাদের মধ্যে ১০ জন মারা গেছে। তারা হল- ১.সাবেক প্রধান বিচারপতি কামালউদ্দিন হোসেন, ২.বিচারপতি দেবেশ চন্দ্র ভট্টাচার্য, ৩.বিচারপতি কে এম সোবহান, ৪.কবি সুফিয়া কামাল, ৫.অধ্যাপক খান সারওয়ার মুরশিদ, ৬.জ্যেষ্ঠ আইনজীবী সৈয়দ ইশতিয়াক আহমেদ, ৭.অধ্যাপক কবীর চৌধুরী, ৮.শিল্পী কলিম শরাফী, ৯.অধ্যাপক মোশাররফ হোসেন ও ১০.সাংবাদিক ফয়েজ আহমদ। আবেদনকারীদের মধ্যে জীবিত পাঁচজন হল- ১.অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, ২. সেক্টর কমান্ডার সি আর দত্ত, ৩.বদরুদ্দীন উমর, ৪.বোরহানউদ্দিন খান জাহাঙ্গীর ও ৫. অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে