অশুভ বা কুলক্ষণ বলে কিছু নেই: অশুভ বা কুলক্ষণ যদি থাকতো তাহলে ঘর-বাড়ি, ঘোড়া এবং নারীদের মধ্যে থাকতো


মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি কোনো কিছুতেই অশুভ বা কুলক্ষণে ধারণা করতে নিষেধ করেছেন। কোনো কিছুর মধ্যে অশুভ বা কুলক্ষণে নেই। তবে ভালো লক্ষণ আছে। সেটা ধারণা করা, বিশ্বাস করা যায়। তিনি এটাও ইরশাদ মুবারক করেন যে, وان تكن الطيارة¬ فى شيى ففى الدار والفرس والمراة অর্থ: “যদি কোনো কিছুতে কুলক্ষণ বা অমঙ্গল থাকতো তাহলে ঘর-বাড়ি, ঘোড়া এবং নারীর মধ্যে থাকতো।” (আবু দাউদ শরীফ, মিশকাত শরীফ) উল্লেখ্য যে, এই তিনটি হচ্ছে মানবজীবনে অনিবার্য উপকরণ। এদের সাথেও নানা প্রকারের বিপদ-আপদ লেগে থাকে। তবুও এগুলোকে কেউ অশুভ বা কুলক্ষণে মনে করে এগুলোকে বর্জন করে না। কাজেই অন্যান্য বিষয়গুলোকে তাহলে অশুভ বা কুলক্ষণে মনে করবে কেন? মূলত, কোনো বিষয়কেই অশুভ বা কুলক্ষণে মনে করা উচিত নয়। কোনো বিষয় পছন্দ না হলে, ভালো না লাগলে সেগুলো ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে পারে। কিন্তু অমঙ্গল বা কুলক্ষণ মনে করা যাবে না। হযরত আনাস ইবনে মালিক রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বলেন, একদা এক ব্যক্তি এসে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে বললেন, ইয়া রসূলাল্লাহ! ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! প্রথমে আমরা এমন একখানা ঘরে বসবাস করছিলাম, যেখানে আমাদের সংখ্যা ও সম্পদ বৃদ্ধি পেলো। পরে আমরা সেই ঘর পরিত্যাগ করে এমন এক ঘরে এসে উঠলাম, যেখানে আমাদের সংখ্যা ও সম্পদ হ্রাস পেলো। তখন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করলেন, “আপনারা এই ঘর পরিত্যাগ করুন। কেননা যা বরকতময় তা গ্রহণ করা উচিৎ।” (আবূ দাউদ শরীফ, মিশকাত শরীফ) পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে আরো বর্ণিত আছে যে, এক ব্যক্তি বললেন, ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আমাদের কাছে আবইয়ান নামে একটি জমি আছে। যেখানে আমরা কৃষি দ্রব্য ও খাদ্যপণ্য ইত্যাদি আমদানি-রফতানী করে থাকি। অর্থাৎ এটা আমাদের ব্যবসাকেন্দ্র। তবে সেখানে প্রায় অসুখ-বিসুখ লেগেই থাকে। তখন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করলেন, ঐ স্থানটি ছেড়ে দিয়ে স্বাস্থ্যকর স্থানে বসবাস করা উচিত।” (আবূ দাউদ শরীফ, মিশকাত শরীফ)
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে