“ইনসাফের ঝলক”


স্পেনের শাসনকর্তা একদিন রাজধানীর নিকটে একটি মনোরম স্থান দেখতে পেয়ে সেখানে তার প্রাসাদ নির্মাণ করতে চাইলেন। জমির মালিক ছিলেন একজন বৃদ্ধা । সে সেখানে একটি কুটিরে বাস করতো । সুলতান বৃদ্ধাকে উপযুক্ত মূল্য দিতে চাইলেন কিন্তু বৃদ্ধা তা গ্রহণ করতে চাইলেন না । সুলতান দ্বিগুণ দাম দিতে চাইলেন কিন্তু বৃদ্ধা গ্রহন করলো না। ফলে সুলতান রেগে গিয়ে জমি জবর দখল করলেন। অল্প সময়ে সেখানে প্রাসাদ গড়ে উঠল। প্রাসাদের সাথে একটি মনোরম উদ্যানও তৈরী হল। কিন্তু বৃদ্ধা নিরুৎসাহ হয়নি। সে কাজীর দরবারে সুলতানের বিরুদ্ধে নালিশ দিল। এদিকে সুলতান কাজীকে নতুন প্রাসাদ ও উদ্যান দেখানোর জন্য আমন্ত্রণ জানালেন। কাজী তার সাথে কয়েকটি খালি বস্তা ও একটি গাধা নিয়ে সুলতানের প্রাসাদে দেখা করলেন। সুলতান অভিজাতদের সমাবেশে গাধা আনার কারণ জিজ্ঞাসা করলেন। উত্তরে কাজী বললেন, আমি মহামান্য সুলতানের বাগান থেকে কয়েক বস্তা মাটি নিতে চাই। যদি আপনি অনুগ্রহ করে অনুমতি দেন, তাহলে বড় উপকার হবে। সুলতান অনুমতি দিলেন। ফলে কাজী বস্তা ভরে মাটি পূর্ণ করে তা গাধার পিঠে তুলতে সুলতানের সাহায্য চাইলেন। সুলতান এটি তামাশা মনে করে কাজীর সাহায্যে এগিয়ে এলেন এবং বস্তা পূর্ণ মাটি তোলার চেষ্টা করলেন। কিন্তু অনেক শক্তি ব্যয় করেও তিনি তুলতে পারলেন না। তখন কাজী বললেন, জনাব যদি আজ এই সামান্য বৃদ্ধা। তুলতে অক্ষম হন, তাহলে শেষ বিচারের দিন যখন মহান আল্লাহ পাক বৃদ্ধার এই মাটি আপনাকে তুলে ফেরত দিতে বলবেন, তখন আপনি কি করবেন? আপনিতো এই জমি জোর করে অন্যায়ে ভাবে দখল করেছেন। সুলতান কাজীর কথায় লজ্জিত ও অনুতপ্ত হয়ে সেই বৃদ্ধাকে ডেকে বললেন, তুমি আমাকে মাফ করে দাও। এখন থেকে এই প্রাসাদ ও বাগান সব তোমার। তুমি এখানেই থাকবে।

আহা! কোথায় এখন আর সেই ন্যায় আর ইনসাফ!! এখনকার বিচারক ও শাসকরা যদি এমন হত। তাহলে দেশে সবাই শান্তিতে থাকতো!!!

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে