ইবলীসের প্রকৃত অনুসারী এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী উরফে লা’নাতুল্লাহ নারবাসী


ইবলীস সে জিন জাতীর অর্ন্তভুক্ত। সে আবিদ, আলিম ও ওয়ায়িজই শুধু ছিল না উপরন্তু সে ছিল মুয়াল্লিমুল মালাকূত অর্থাৎ হযরত ফেরেশ্তা আলাইহিমুস সালাম উনাদের শিক্ষক। এরপরও সে কিন্তু মহান আল্লাহ পাক উনার সম্মানিত নবী ও রসূল হযরত আবুল বাশার আদম ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার বিরুদ্ধে মানহানীকর বক্তব্য দেয়ার কারণে মালঊন, মারদূদ, রজীম, শয়তান ইত্যাদি মন্দ খিতাবে অভিযুক্ত হয়। নাউযুবিল্লাহ!
অর্থাৎ খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি যখন উনার মনোনীত ও মহাসম্মানিত রসূল হযরত আবুল বাশার ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে সিজদা করার জন্য হযরত ফেরেশ্তা আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে আদেশ মুবারক করলেন এবং সেই সাথে ইবলীসকেও আদেশ মুবারক করা হলো। সকলেই সিজদা করলেন কিন্তু ইবলীস সিজদা করা থেকে বিরত রইল। সে সিজদা না করার পক্ষে যুক্তি পেশ করে বললো, তাকে সৃষ্টি করা হয়েছে আগুন দিয়ে আর হযরত আদম আলাইহিস সালাম উনাকে সৃষ্টি করা হয়েছে মাটি দিয়ে। আগুনের স্বভাব হচ্ছে উপরে থাকা আর মাটির স্বভাব হচ্ছে নিচে থাকা। নাউযুবিল্লাহ!
তদ্রƒপ মহান আল্লাহ পাক উনার মনোনীত ওলী ও মুজাদ্দিদ সাইয়িদুনা হযরত ইমামুল উমাম ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার সম্মানিত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মহান শানে মানহানিকর বক্তব্য দিয়ে ইবলীসের ন্যায় চরম ভন্ড প্রতারক মিথ্যাবাদী এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী উরফে লা’নাতুল্লাহ নারবাসী ব্যক্তিটি মালউন, মুনাফিক, মুরতাদ, মানবরূপী শয়তানে পরিণত হয়েছে। নাউযুবিল্লাহ!
এই মানবরূপী শয়তান বিনা দলীলে মনগড়াভাবে যুক্তি পেশ করে রাজারবাগ শরীফ উনার সম্মানিত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার সম্মানিত কতিপয় লক্বব মুবারক উনার অপব্যাখ্যা করে উনার শানে কুফর ও শিরকের তোহমত দেয়। ফলে সে নিজেই কাফির ও মুশরিক সাব্যস্ত হয়। নাউযুবিল্লাহ!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে