ইহুদী বংশদ্ভূত সউদী ওহাবী সরকারের শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা!


 

ইহুদী বংশদ্ভূত সউদীর ওহাবী সরকার পবিত্র দ্বীন ইসলাম সম্মত হিজরী ক্যালেন্ডারকে বাদ দিয়ে ইহুদী-নাছারাদের দ্বারা প্রবর্তিত গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নাউযুবিল্লাহ! গত সপ্তাহে ইহুদী বংশদ্ভূত সউদী ওহাবী সরকারের মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আরব নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সরকারের মন্ত্রিসভা সিদ্ধান্ত নেয় এখন থেকে পবিত্র হিজরী সনের পরিবর্তে জানুয়ারি-ডিসেম্বরকে অর্থ বছর ধরা হবে। নাউযুবিল্লাহ! ১ অক্টোবর থেকে নতুন এ সিদ্ধান্ত কার্যকর ধরা হয়েছে। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মুবারক নির্দেশ অনুযায়ী হিজরী বর্ষে রয়েছে ১২টি মাস এবং চাঁদ দেখা সাপেক্ষে মাসগুলোর ব্যাপ্তি ২৯ থেকে ৩০ দিন হয়ে থাকে। অন্যদিকে ইহুদী-নাছারাদের দ্বারা প্রবর্তিত গ্রেগরিয়ান মাসগুলো ৩০ থেকে ৩১ দিনের। শুধু ফেব্রুয়ারি মাস ২৮ বা ২৯ দিনের হয়ে থাকে। হিজরী বর্ষ পূর্ন হয়ে থাকে ৩৫৪/৩৫৫ দিনে আর গ্রেগরিয়ান বর্ষ পূর্ন হয়ে থাকে ৩৬৫ দিনে। গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার চালুর ফলে সউদী আরবে চাকুরিজীবীদেরকে আগের বেতনেই বছরে ১১ দিন বেশি কাজ করতে হবে। মদ, জুয়াসহ অনৈতিক কর্মকাণ্ডে অপব্যয়ের সরকার হিসেবে পরিচিত ইহুদী বংশদ্ভূত সউদী ওহাবী সরকার । এছাড়া প্রতিবেশী মুসলিম দেশ ইয়েমেনে আগ্রাসন চালাতে গিয়ে সউদী ওহাবী সরকার ইহুদী- নাছারা এবং সমরাস্ত্রের পিছনে খরচ করছে কোটি কোটি ডলার। এর ফলে চলতি বছর সউদী আরব ১০,০০০ কোটি ডলার সমপরিমাণ বাজেট ঘাটতির সম্মুখীন হয়েছে বলে গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এখন সউদী ওহাবী সরকার গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার চালু করে চাকুরিজীবীদেরকে বছরে ১১ দিনের বেতন কম দিয়ে বাজেট ঘাটতি কমাতে চাইছে। ইহুদী বংশদ্ভূত সউদী ওহাবী সরকারের এমন গুমরাহী এবং হাস্যকর কর্মকা- দেখে বাংলা ভাষার সেই প্রবাদ বাক্যটি আমাদের বারবার মনে পড়ছে শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা।
Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে