ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে তা’যীম, সম্মান, উদযাপন না করে হারাম খেলায় মগ্ন হলে কঠিন কাফফারা আদায় করতে হবে


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে পাওয়ার কারণে জিন-ইনসানসহ কুল-কায়িনাতের খুশি প্রকাশ করার কথা আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন তিনি কুরআন শরীফ-এর সূরা ইউনূস-এর ৫৮ নং আয়াত শরীফ-এই বলেছেন। এখন যারা খুশি প্রকাশ করবে, উনার তা’যীম তাকরীম করবে, উনার ছানা-ছিফত করবে তারা বেমেছাল মর্যাদা লাভ করবে। পক্ষান্তরে যারা উনার বিরোধিতা করবে, উনার সুমহান শান মুবারক-এর অবমাননা করার অপপ্রয়াস চালাবে, তারা যে ধ্বংস হবে, নির্বংশ হবে সেটাও আল্লাহ পাক তিনি উল্লেখ করে দিয়েছেন সূরা কাওসারের মধ্যে।
যেখানে স্বয়ং আল্লাহ পাক উনার হাবীব উনাকে পেয়ে খুশি করতে বললেন, তা’যীম-তাকরীম, সম্মান করতে বললেন, সেখানে উনারই পবিত্র বিলাদত শরীফ ১২ই রবীউল আউয়াল শরীফ-এ খুশি প্রকাশ না করে কেউ যদি এর বিরোধিতা করে হারাম বিশ্বকাপ ক্রিকেটের উদ্বোধন করে তাহলে সেটা কী উনার অমর্যাদা নয়; উনার পবিত্র শানে ইহানত নয়। আর যারা এই বিরোধিতা করছে, মহান দিবসের অমর্যাদা করছে তারা কী সূরা কাওসারের ঘোষণার মধ্যে পড়বে না?
তাই এ বিষয়ে সরকার ও সমস্ত জনগণকে সাবধান হতে হবে। এই মাস, দিবসকে অত্যন্ত তা’যীম, তাকরীম, সম্মান দিয়ে উদযাপন করতে হবে। এর জন্য সরকারি অর্থ বরাদ্দসহ ছুটির ব্যবস্থা করা, মাহফিলের আয়োজন করা, মীলাদ শরীফ-এর আয়োজন করা, সরকারসহ সবার দায়িত্ব ও কর্তব্য। অন্যথায় কঠিন অবস্থার সম্মুখীন হতে হবে।

Views All Time
1
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

  1. সরলমতসরলমত says:

    অন্যথায় কঠিন অবস্থার সম্মুখীন হতে হবে।

  2. কুমিল্লাবাসীkomillabashi says:

    সরলমত ভাই জান আপনে ঠিক বলেছেন .আপনা কে ধন্যবাদ

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে