ঈমানী কুওয়াত এর একটি বিরল দৃষ্টান্ত


উহুদের যুদ্ধে ৭০ জন শহীদ হয়েছেন! একেক জনের লাশ এনে এক জায়গায় রাখা হচ্ছে।
নবীজী হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি গুনে দেখেলেন ৬৮ টি লাশ, ২ টি কম।
… একজন উনার চাচা হযরত হামজা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু আরেকজন হযরত হানজালা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু অস্থির হয়ে পড়েছেন আল্লাহপাক উনার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি। সব হযরত সাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনাদের পাঠালেন লাশ খোজার জন্য।
…হটাৎ বোরকা পরা এক মহিলা এসে দাঁড়ালেন উনার কাছে।
নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি মহিলাকে চিনলেন না।
,
– মহিলা বললেন; ইয়া রাসুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম গতকাল আপনি একটা বিয়ে পড়িয়েছিলেন মনে আছে?
নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন; হা আমি তো হযরত হানজালা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার বিয়ে পড়িয়েছি। যার বিয়ের খুশিতে আমি খুরমা খেজুর ছিটিয়ে ছিলাম। –
,
মহিলা বললেন; ইয়া রাসুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!
আমার হাতটা দেখেন। হাতের মেহেদী এখনও শুকায় নাই। কাল বিকেলে বিয়ে হয়েছিল আর রাত ২ টা বাজে উহুদের যুদ্ধের জন্য বের হয়ে গেছে আমার আহাল। বাসর রাতে তার সাথে আমার ভালোভাবে পরিচয়ই হয় নাই। যাওয়ার আগে শুধু বলে গেছেন “যদি দেখা হয় তাহলে দেখা হবে দুনিয়ায়, আর যদি শহীদ হয়ে যাই তাহলে দেখা হবে জান্নাতে”
সুবহানআল্লাহ্
,
– মহিলা বললেন ইয়া রাসুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যাওয়ার আগে আমার কপালে একটা চুম্বন করে গেছেন। লজ্জায় বলতেও পারি নাই আপনার জন্য গোসল ফরজ।
নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মহিলাটির কথা শুনে অঝোর ধারায় কাঁদতে শুরু করলেন।
,
মহিলা বললেন ইয়া রাসুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, শহীদদের তো আপনি গোসল দেন না আমার স্বামীকে আপনি একটু গোসল দিয়েন! হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি সম্মতি মুবারক প্রকাশ করার পর একজন সাহাবী দৌড়ে এসে বললেন, ইয়া রাসুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলািইহি ওয়া সাল্লাম , হযরত হানজালা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনাকে পাওয়া গেছে।
,
— সবাই গেলেন। গিয়ে দেখলেন সাদা কাফনের ভিতর লাশের মাথায় পানি। নবীজি মাথা হাতায়ে দিলেন।হযরত জীব্রাঈল আলাইহিস সালাম আসলেন!
,
…এসে বললেন; ইয়া রাসুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হযরত হানজালা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার কুরবানিতে আল্লাহ্পাক তিনি এতটাই খুশি হয়েছেন যে, তিনি আমার বাহিনীকে আদেশ মুবারক করলেন উনাকে নিয়ে আসতে। .
,
…ইয়া রাসুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আমরা ফেরেশতারা উনাকে তৃতীয় আসমানে এনে জমজমের পানি মুবারক দিয়ে গোসল করিয়েছি এবং উনার শরীর মুবারকে যে সুগন্ধ দেখছেন এটা আল্লাহ্পাক উনার বিশেষ খুসবু মিশক আম্বর আতর ।
সুবহানআল্লাহ্
কঠিন এই যামানায় আল্লাহপাক আমাদের সবাকে হযরত হানজালা রদ্বিয়াল্লাহু আনহু উনার মত ঈমানী কুওয়াত , ঈমানী জজবা দান করুন।

আমীন

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে