উন্নয়নের কথা বলে পবিত্র মসজিদগুলো ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে! নাউযুবিল্লাহ!


পবিত্র মসজিদ হচ্ছে মহান আল্লাহ পাক উনার ঘর। সম্মানিত মুসলমানগণের ইবাদত- বন্দেগীর স্থান। বাংলাদেশ ৯৮ ভাগ মুসলমানের দেশ। সঙ্গতকারণে অতিব প্রয়োজনে বিভিন্ন স্থানে গড়ে উঠেছে পবিত্র মসজিদসমূহ। প্রতিটি এলাকার মুসল্লিগণের অর্থে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এসব পবিত্র মসজিদ।

অথচ নানা অজুহাত দাঁড় করিয়ে অত্যন্ত কৌশলে ও সঙ্গোপনে মুসলমানগণকে বোকা বানিয়ে একটি কুচক্রী মহল সারা দেশে মসজিদ, মাদরাসাগুলো উচ্ছেদের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। ছলে বলে কৌশলে একের পর এক পবিত্র মসজিদ মাদরাসাগুলো ভেঙ্গে ফেলে সম্মানিত দ্বীন ইসলাম ও সম্মানিত মুসলমানগণের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করছে। অথচ অনেক মুসলমান এ ব্যাপারে বে-খবর।

এই হীন ষড়যন্ত্রমূলক বর্বরোচিত কাজের সাথে কারা জড়িত? কোন কুচক্রীমহল? বিষয়টি পরিষ্কার হওয়া দরকার। কেননা বিষয়টি পরিষ্কার হলে মুসলমানগণ তাদের ঈমানী চেতনায় উজ্জিবীত হতে পারবে। যারা মহান আল্লাহ পাক উনার পবিত্র ঘর পবিত্র মসজিদ ভাঙ্গার সাথে জড়িত তারা কখনো মুসলমান হতে পারে না। তারা অবশ্যই মুনাফিক, নাস্তিক। মহান আল্লাহ পাক উনার এবং উনার হাবীব নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের শত্রু। আবরাহার বংশোদ্ভুত, উত্তরসূরী। আর তাদের পরিণতি অবশ্যই আবরাহার মতো হবে। তাতে কোন সন্দেহ নেই। আর আবরাহা ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে পবিত্র কা’বা শরীফ ধ্বংস করার জন্য এসেছিল। কিন্তু সে নিজেই ধ্বংস হয়েছে। কাজেই, আজ যারা পবিত্র কা’বা শরীফ উনার শাখা পবিত্র মসজিদ ভাঙ্গার সাথে জড়িত তারাও ধ্বংস হবে, ধিকৃত হবে, লাঞ্ছিত হবে। আসমানী রোষানলে পুড়ে ছারখার হবে। যা সময়ের দাবি।

মহান আল্লাহ পাক উনার, উনার হাবীব নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার এবং সমস্ত মুসসলমানগণের লা’নত তাদের উপর বর্ষিত হউক। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে