উম্মতের মধ্যে সর্বপ্রথম বেহেশতে প্রবেশকারী হচ্ছেন- খলীফাতু রসূলিল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম


‘আবূ দাউদ শরীফ’ ও মিশকাত শরীফ’ উনাদের মধ্যে বর্ণিত আছে, “হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, একদা হযরত জিবরীল আলাইহিস সালাম তিনি আসলেন এবং আমার হাত মুবারক ধরে আমাকে জান্নাতের ওই দরজাটি দেখালেন, যেই পথে আমার উম্মতগণ প্রবেশ করবেন। তখন সাইয়্যিদুনা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম তিনি আরজ করলেন, ইয়া রসূলুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! কতোই না আনন্দিত হতাম, যদি আমি আপনার সঙ্গে থেকে প্রবেশদ্বারটি দেখতে পেতাম। এটা শুনে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, হে হযরত আবূ বকর ছিদ্দীক্ব আলাইহিস সালাম! জেনে রাখুন, আমার উম্মতের মধ্যে আপনিই সর্বপ্রথম বেহেশতে প্রবেশ করবেন।” সুবহানাল্লাহ!
অর্থাৎ তিনিই আফদ্বালুন নাস বা’দাল আম্বিয়া তথা হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালামগণ উনাদের পরে শ্রেষ্ঠ মানুষ। তিনিই প্রথম খলীফা, তিনিই বয়স্ক পুরুষদের মধ্যে প্রথম পবিত্র দ্বীন ইসলাম গ্রহণকারী এবং তিনিই সর্বপ্রথম জান্নাতে প্রবেশকারী। সুবহানাল্লাহ!
সাইয়্যিদুনা হযরত ছিদ্দীক্বে আকবর আলাইহিস সালাম উনারই পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশের দিবস হচ্ছে পবিত্র ২২ জুমাদাল উখরা শরীফ। এদিনে সরকারিভাবে ছুটি ঘোষণা করা সকল দেশের সরকার প্রধানদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে