উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল হাদিয়াহ্ ‘আশার আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র বরকতময় নসবনামাহ মুবারক


সাইয়্যিদাতু নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা’ বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল হাদিয়াহ্ ‘আশার আলাইহাস সালাম তিনি মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র নসব মুবারকগত দিক থেকে সম্মানিত কুরাইশ বংশীয়। সুবহানাল্লাহ! উনার মহাসম্মানিত পিতা হচ্ছেন সাইয়্যিদুনা হযরত আবূ সুফিয়ান আলাইহিস সালাম। উনার মূল নাম মুবারক হচ্ছেন- সাইয়্যিদুনা হযরত ছখ্র আলাইহিস সালাম। তিনি ছিলেন সম্মানিত কুরাইশ বংশ উনার বিশেষ শাখা বনূ উমাইয়্যাহ গোত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব মুবারক। উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল হাদিয়াহ্ ‘আশার আলাইহাস সালাম তিনি উনার মহাসম্মানিত পিতা আলাইহিস সালাম উনার দিক থেকে ৬ষ্ঠ পুরুষে যেয়ে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে মিলিত হয়েছেন। সুবহানাল্লাহ! যেমন-
اُمُّ الْمُؤْمِنِيْنَ سَيِّدَتُناَ حَضْرَتْ اُمُّ حَبِيبَةَ بِنْتُ أَبِي سُفْيَانَ بْنِ حَرْبِ بْنِ أُمَيّةَ بْنِ عَبْدِ شَمْسِ بْنِ عَبْدِ مَنَافِ عَلَيْهِمُ السَّلَامُ
১. اُمُّ الْمُؤْمِنِيْنَ سَيِّدَتُناَ حَضْرَتْ اُمُّ حَبِيبَةَ عَلَيْهَا السَّلَامُ উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মু হাবীবাহ্ আলাইহাস সালাম।
২. سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ اَبُوْ سُفْيَانَ عَلَيْهِ السَّلَامُ সাইয়্যিদুনা হযরত আবূ সুফইয়ান আলাইহিস সালাম।
৩. حَرْب عَلَيْهِ السَّلَامُ سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ সাইয়্যিদুনা হযরত র্হাব আলাইহিস সালাম।
৪. أُمَيّة عَلَيْهِ السَّلَامُ سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ সাইয়্যিদুনা হযরত উমাইয়্যাহ্ আলাইহিস সালাম।
৫. سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ عَبْدُ شَمْسٍ عَلَيْهِ السَّلَامُ সাইয়্যিদুনা হযরত ‘আব্দু শাম্স আলাইহিস সালাম।
৬. عَبْدُ مَنَافٍ عَلَيْهِ السَّلَامُ سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ সাইয়্যিদুনা হযরত ‘আব্দু মানাফ আলাইহিস সালাম।
সাইয়্যিদুনা হযরত ‘আব্দু মানাফ আলাইহিস সালাম তিনি নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পূর্বপুরুষ উনাদের অন্তর্ভুক্ত। সুবহানাল্লাহ!
(মিরআতুল আনসাব-২৪, আল আহাদ ওয়াল মাছানী ৫/৪১৮, আল মু’জামুল কাবীর লিত ত্ববারনী ২৩/২১৯, ইবনে হিশাম ২/৬৪৮, দালায়িলুন নুবুওওয়াহ্ লিলবাইহাক্বী ৭/২৮৫, সুবুলুল হুদা ওয়ার রশাদ ১১/১৪৪, শারহুয যারক্বানী ৪/৩৬০, মাওয়াহিবুল লাদুন নিয়্যাহ ১/৪৯১, বিদায়া-নিহায়া ৫/৩১৫ ইত্যাদী)

মহাসম্মানিতা মাতা আলাইহাস সালাম উনার দিক থেকে-
সাইয়্যিদাতু নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা’ বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল হাদিয়াহ্ ‘আশার আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিতা আম্মাজান হচ্ছেন- সাইয়্যিদুনা হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার আপন ফুফু সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছফিয়্যাহ্ বিনতে আবুল ‘আছ আলাইহাস সালাম। সুবহানাল্লাহ!। সুবহানাল্লাহ! তিনিও ছিলেন সম্মানিত বনী উমাইয়্যাহ্ গোত্রের। সুবহানাল্লাহ! উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল হাদিয়াহ্ ‘আশার আলাইহাস সালাম তিনি উনার মহাসম্মানিতা মাতা আলাইহাস সালাম উনার দিক থেকেও ৬ষ্ঠ পুরুষ সাইয়্যিদুনা হযরত ‘আবদু মানাফ আলাইহি সালাম উনার নিকট যেয়ে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে মিলিত হয়েছেন। সুবহানাল্লাহ! যেমন-
اُمُّ الْمُؤْمِنِيْنَ سَيِّدَتُناَ حَضْرَتْ اُمُّ حَبِيبَةَ بِنْتُ صَفِيَّةُ بِنْتُ أَبِي الْعَاصِ بْنِ أُمَيَّةَ بْنِ عَبْدِ شَمْسٍ، بْنِ عَبْدِ مَنَافِ عَلَيْهِمُ السَّلَامُ
১. اُمُّ الْمُؤْمِنِيْنَ سَيِّدَتُناَ حَضْرَتْ اُمُّ حَبِيبَةَ عَلَيْهَا السَّلَامُ উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মু হাবীবাহ্ আলাইহাস সালাম।
২.سَيِّـدَتُنَـا حَضْرَتْ صَفِيَّةُ عَلَيْهَا السَّلَامُ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছফিয়্যাহ্ আলাইহাস সালাম।
৩. أَبو الْعَاصِ عَلَيْهِ السَّلَامُ سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ সাইয়্যিদুনা হযরত আবুল ‘আছ আলাইহিস সালাম।
৪. أُمَيّة عَلَيْهِ السَّلَامُ سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ সাইয়্যিদুনা হযরত উমাইয়্যাহ্ আলাইহিস সালাম।
৫. سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ عَبْدُ شَمْسٍ عَلَيْهِ السَّلَامُ সাইয়্যিদুনা হযরত ‘আবদু শাম্স আলাইহিস সালাম।
৬. عَبْدُ مَنَافٍ عَلَيْهِ السَّلَامُ سَيِّـدُنَـا حَضْرَتْ সাইয়্যিদুনা হযরত ‘আবদু মানাফ আলাইহিস সালাম।
সাইয়্যিদুনা হযরত ‘আবদু মানাফ আলাইহিস সালাম তিনি নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পূর্বপুরুষ উনাদের অন্তর্ভুক্ত। সুবহানাল্লাহ!
(মিরআতুয যামান ৭/৬৪, ‘উয়ূনুল আছার ২/৩৭৩, সুবুলুল হুদা ওয়ার রশাদ ১১/১৯৩, তারীখে ত্ববারী ১১/৬০৩, আনসাবুল আশরাফ ৫/৬ ইত্যাদী)
-মুহম্মদ ইবনে ছিদ্দীক্ব।

হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সম্মানিত পরিচিতি মুবারক
اُمَّهَاتٌ (উম্মাহাত) শব্দ মুবারকখানা اُمٌّ (উম্মুন) শব্দ মুবারক উনার বহুবচন। অর্থ মাতাগণ। আর اَلْمُؤْمِنِيْنَ (আল মু’মিনীন) শব্দ মুবারকখানা اَلْمُؤْمِنُ (আল মু’মিন) শব্দ মুবারক উনার বহুবচন। অর্থ মু’মিনগণ। আর اَلْمُؤْمِنِيْنَ (আল মু’মিনীন) শব্দ মুবারক উনার শুরুতে যে ال (আলিফ লাম) রয়েছে, তা হচ্ছে ال (আলিফ লামে) ইস্তিগরক্বী।
সুতরাং উম্মাহাতুল মু’মিনীন উনার অর্থ হচ্ছেন সমস্ত মু’মিন উনাদের মহাসম্মানিতা মাতাগণ। সুবুহানাল্লাহ! অর্থাৎ সমস্ত হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারাসহ সৃষ্টির শুরু থেকে এ পর্যন্ত যত মু’মিন দুনিয়ার যমীনে এসেছেন এবং ক্বিয়ামত পর্যন্ত যত মু’মিন দুনিয়ার যমীনে আসবেন উনাদের প্রত্যেকেরই মহাসম্মানিতা মাতা হচ্ছেন হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা। সুবহানাল্লাহ! সুবহানাল্লাহ! সুবহানাল্লাহ! হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা যেহেতু একমাত্র যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার হাবীব, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি অর্থাৎ উনারা ব্যতীত সমস্ত হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারাসহ সমস্ত জিন-ইনসান, তামাম কায়িনাতবাসী সকলের মহাসম্মানিতা মাতা আলাইহিন্নাস সালাম, তাই উনাদেরকে ‘উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম’ বলা হয়। সুবহানাল্লাহ!
এ বিষয়টি স্বয়ং মহান আল্লাহ পাক তিনি সম্মানিত ও পবিত্র আয়াত শরীফ নাযিল করে হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের শান মুবারক সম্পর্কে হাক্বীক্বী ফায়ছালা মুবারক করে দিয়েছেন। সুবহানাল্লাহ! মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-
اَلنَّبِـىُّ اَوْلـٰى بِالْمُؤْمِنِيْنَ مِنْ اَنْفُسِهِمْ وَاَزْوَاجُهۤٗ اُمَّهٰتُهُمْ.
অর্থ: “নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হচ্ছেন মু’মিন উনাদের নিকট উনাদের জানের চেয়ে অধিক প্রিয়, উনাদের মহাসম্মানিত পিতা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং উনার মহাসম্মানিতা ‘আযওয়াজুম মুত্বহহারাত’ (হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম) উনারা হচ্ছেন সমস্ত মু’মিন উনাদের মহাসম্মানিতা মাতা আলাইহিন্নাস সালাম।” সুবহানাল্লাহ! (সম্মানিত ও পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ : সম্মানিত ও পবিত্র আয়াত শরীফ ৬)
হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা কতো জন এ নিয়ে অনেকেই অনেক ইখতিলাফ করেছেন। আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা ইমাম খলীফাতুল্লাহ হযরত আস সাফফাহ আলাইহিছ ছলাতু ওয়াস সালাম তিনি সমস্ত ইখতিলাফকে মিটিয়ে দিয়ে ইরশাদ মুবারক করেন যে, হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা ছিলেন মোট ১৩ জন। সুবহানাল্লাহ! সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খ¦াতামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত খিদমত মুবারক-এ সম্মানিত তাশরীফ মুবারক নেয়ার মুবারক ধারাবাহিকক্রম অনুযায়ী উনাদের সম্মানিত ও পবিত্র ইসম বা নাম মুবারক হচ্ছেন-
১. উম্মুল মু’মিনীন আল ঊলা সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা (হযরত খাদীজা) আলাইহাস সালাম।
২. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছানিয়াহ (হযরত সাওদাহ বিনতে যাম‘আহ) আলাইহাস সালাম,
৩. উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দীক্বাহ (হযরত আয়িশা) আলাইহাস সালাম।
৪. উম্মুল মু’মিনীন আর রবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ইবনাতু আবীহা (হযরত হাফছাহ) আলাইহাস সালাম।
৫. উম্মুল মু’মিনীন আল খামিসাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মাসাকীন (হযরত যাইনাব বিনতে খুযাইমাহ) আলাইহাস সালাম।
৬. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আস সাদিসাহ (হযরত উম্মু সালামাহ বিনতে আবী উমাইয়্যাহ) আলাইহাস সালাম।
৭. উম্মুল মু’মিনীন আস সাবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত আত্বওয়ালু ইয়াদান (হযরত যাইনাব বিনতে জাহ্শ) আলাইহাস সালাম।
৮. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছামিনাহ (হযরত জুওয়াইরিয়া বিনতে হারিছ) আলাইহাস সালাম।
৯. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আত তাসি‘য়াহ (হযরত রায়হানাহ বিনতে শাম‘ঊন) আলাইহাস সালাম।
১০. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল ‘আশিরাহ (হযরত ছফিয়্যাহ বিনতে হুইয়াই বিনতে আখত্বব) আলাইহাস সালাম।
১১. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল হাদিয়াহ ‘আশার (হযরত উম্মু হাবীবাহ বিনতে আবী সুফিয়ান) আলাইহাস সালাম।
১২. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছানিয়াহ ‘আশার (হযরত মারিয়াহ ক্বিবতিয়াহ) আলাইহাস সালাম।
১৩. উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছালিছাহ ‘আশার (হযরত মাইমূনাহ বিনতে হারিছ) আলাইহাস সালাম। সুবহানাল্লাহ!

পবিত্র আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে তা’যীম, তাকরীম, ইযযত, সম্মান ও মুহব্বত মুবারক করা ফরয

মহান আল্লাহ পাক তিনি হযরত আহলু বাইত শরীফ উনাদের সম্পর্কে আরো ইরশাদ মুবারক করেন-
قُل لَّا اَسْاَلُكُمْ عَلَيْهِ اَجْرً‌ا اِلَّا الْمَوَدَّةَ فِي الْقُرْ‌بٰى
অর্থ: “হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি (উম্মতদেরকে) বলুন, আমি তোমাদের নিকট কোন বিনিময় চাই না, অর্থাৎ উম্মতের পক্ষে বিনিময় দেয়াও কখনই সম্ভব নয় এবং বিনিময় দেয়ার চিন্ত-ফিকির করাটাও কুফরীর অন্তর্ভুক্ত। তবে উম্মতকে যেহেতু নাজাত লাভ করতে হবে সেজন্য তাদের কর্তব্য হচ্ছে, তারা যেন আমার পবিত্রতম একান্ত আপনজন অর্থাৎ আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করে।” সুবহানাল্লাহ (পবিত্র সূরা শূরা শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ২৩)
এ পবিত্র আয়াত শরীফ উনার ব্যাখ্যায় বিশ্বখ্যাত তাফসীর “তাফসীরে মাযহারী শরীফ” ৮ম জিলদ ৩২০ পৃষ্ঠায় বর্ণিত রয়েছে,
لَا اَسْئَلُكُمْ اَجْرًا اِلَّا اَنْ تُوَدُّوْا اَقْرَبَائِىْ وَاَهْلَ بَيْتِـىْ وَعِتْرَتِىْ
অর্থ : “আমি তোমাদের নিকট কোন প্রতিদান চাইনা; তবে তোমরা আমার নিকটাত্মীয়, হযরত আহ্লে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম তথা পবিত্রতম ‘বংশধর’ আলাইহিমুস সালাম উনাদের (যথাযথ সম্মান প্রদর্শন পূর্বক) হক্ব আদায় করবে।

উপরোক্ত পবিত্র আয়াত শরীফ উনার তাফসীর শরীফ উনার মধ্যে কিতাবে উল্লেখ করা হয়েছে, হযরত ইবনে আব্বাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বর্ণনা করেন, যখন এ আয়াত শরীফ নাযিল হয় তখন হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা জিজ্ঞেস করেছিলেন, ইয়া রসূলাল্লাহ, ইয়া হাবীবাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! উনারা কারা? যাঁদের প্রতি মহান আল্লাহ পাক তিনি সম্মান প্রদর্শন করার নির্দেশ মুবারক দিয়েছেন! পবিত্রতম জাওয়াবে- নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, উনারা হলেন সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম ও উনার আওলাদ আলাইহিমুস সালাম উনারাই।” সুবহানাল্লাহ! (তাফসীরে ইবনে আবি হাতিম, তাফসীরে ইবনে কাসীর ৭/১৭৯, তাফসীরে মাযহারী ৭/৩১৮)
উক্ত পবিত্র আয়াত শরীফ উনার ব্যাখ্যায় পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত হয়েছে-
سأل حضرة ابن عباس رضى الله تعالى عنهما فقال يا رسول الله صلى الله عليه وسلم من قرابتك هؤلاء الذين وجبت علينا مودته؟ فقال رسول الله صلى الله عليه وسلم حضرة على عليه السلام و حضرة فاطمة عليها السلام وولدهـما عليهما السلام.
অর্থ: হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুমা তিনি সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাস্্সাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে জিজ্ঞাসা করলেন- ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনার হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা কারা? যে সমস্ত ব্যক্তিত্ব মুবারক উনাদের খিদমত মুবারক করা আমাদের জন্য আবশ্যক? (ফরয-ওয়াজিব করা হয়েছে)। নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করলেন- হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম, হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম এবং উনার পূত-পবিত্র সম্মানিত দু’আওলাদ আলাইহিমাস সালাম উনারা হলেন আমার সম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম। সুবহানাল্লাহ! (ত্ববারানী শরীফ)
সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা কারা? এ সম্পর্কে পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাস্্সাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-
اللهم هؤلاء اهل بيتى وخاصتى
অর্থ: আয় আল্লাহ পাক! উনারা (হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম, হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম, হযরত ইমাম হাসান আলাইহিস সালাম ও হযরত ইমাম হুসাইন আলাইহিস সালাম) উনারা সকলেই খাছভাবে আমার পবিত্রতম আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনার অন্তর্ভুক্ত। সুবহানাল্লাহ! (তাফসীরে রূহুল মায়ানী)

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে