উসমানী সাম্রাজ্যের সামাজিক শিষ্টাচার


 
বাকির খাতা পরিশোধ
===========
উসমানি সুলতানদের সুদীর্ঘ শাসনামলে সাধারণ মানুষের মধ্যে আর্থিক সচ্ছলতা ছিল। বড় বড় শহরের ধনী ও বিত্তবান মানুষের সংখ্যা ছিল অনেক। সমাজের উচ্চবিত্তের লোকেরা সাধ্যেমতো গরিব ও অসহায় শ্রেনীর মানুষের পাশে দাড়াতেন।
অনেক বিত্তবান ব্যক্তি গোপনে বিভিন্ন এলাকার মুদি দোকানগুলোতে গিয়ে সেখানকার স্থানীয় গরিব মানুষের নামে রাখা বাকি হিসাবের খাতা চাইতেন। তারপর যেসব গরীব মানুষ ওইসব দোকান থেকে বাকিতে পণ্য নিত, তাদের সব ঋণ পরিশোধ করে দিতেন। এই পণ্যময় কাজে সব সময় নিজের নাম গোপন রাখতেন দানশীল ব্যক্তি।
ফলে মাস শেষে দরিদ্র লোকেরা মূল পরিশোধের সময় দোকানে আসত, দোকানদার হাসিমুখে তাদের জানিয়ে দিত, অজ্ঞাত ব্যক্তি এসে আপনাদের সবার হিসাব মিটিয়ে গেছেন।
উসমানী শাসনামলে বিত্তবান সমাজে এ মহতী প্রথা খুব স্বাভাবিক হিসেবে প্রচলিত ছিল।
 
লাল গোলাপ-হলুদ গোলাপ
=============
 
উসমানি শাসনামলে কোন সাধারণ মানুষের বাড়ির সামনে হলুদ রঙের গোলাপ ফুল রাখা থাকলে বুঝিা যেত, ওই বাড়িতে অসুস্থ মানুষ আছে।ফলে ওই বাড়ির সামনে দিয়ে যাতায়াতকালে পথচারীরা নীরব থাকতো বা নিচু স্বরে কথা বলতো, যাতে অসুস্থ ব্যক্তির কষ্ট না হয়।
আর যেসব বাড়ির সামনে লাল গোলাপের ডালি রাখা থাকতো, ওই বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় লোকেরা বুঝে নিত, এই বাড়িতে বিয়ের উপযুক্ত কণ্যা রয়েছে। ফলে বিবাহযোগ্য পাত্রের অভিভাবকেরা ওই বাড়িতে বিয়ের প্রস্তাব পাঠাতেন।পাশাপাশি স্থানীয় তরুণেরা ওই বাড়ির আশপাশে আড্ডা দেওয়া অথবা অশালীন কথা বলা থেকে বিরত থাকতো।
Views All Time
2
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে