একটি খেজুর গাছ —


দেশজুড়ে এখন চলছে ভরা শীত মৌসুম। এক সময় শীত মৌসুম বলতেই বোঝা যেত খেজুরের রস এবং রসের তৈরি নানা রকমের পিঠা ও পায়েসের আয়োজন। আর এসব পিঠা ও পায়েস খুবই মজাদার। আমার মনে হয় এমন কোন লোক নেই যে, খেজুরের রস ও গুড়ের তৈরির পিঠা এবং পায়েসের কথা শুনলে জিভে জল আসবে না। তবে এখন আর সে দিন নেই। প্রতিবছর শীত ঠিকই আসে কিন্তু আমরা পাই না সেই খেজুরের টাটকা রস ও রসের তৈরি পায়েস এবং নানা রকমের পিঠার স্বাদ। কারণ আমাদের দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে হারিয়ে যাচ্ছে খেজুর গাছ। অবাধে ইটভাটায় পোড়ানো হচ্ছে খেজুর গাছ। তাছাড়া নতুন করে খেজুর গাছ লাগানো হচ্ছে না।

অথচ একটি খেজুর গাছ থেকে বছরে ৩০০০ টাকা থেকে ৪০০০ টাকা পর্যন্ত আয় করা সম্ভব যা অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখতে পারে। খেজুর গাছের কাঠও বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা যায়। এর কাঠ দ্বারা ঘরের খুঁটি, আড়া ইত্যাদি তৈরি করা যায়। পাতাও ব্যবহার করা যায় নানা কাজে। এক কথায় খেজুর গাছের কোন কিছুই ফেলনা নয়। খেজুর গাছের প্রতি তেমন যতœও নেয়ার দরকার হয় না। একটু সুযোগ পেলেই এ গাছের চারা ধীরে ধীরে বেড়ে ওঠে। তাই আসুন অন্যান্য গাছের পাশাপাশি আমরা বেশি করে খেজুর গাছ লাগাই এবং এর প্রতি যতœবান হই।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে