একটি ফ্লাইওভারের বাজেট দিয়ে একটি শহর তৈরি করা সম্ভব


যানজট নিরসনের নামে হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয় করে একের পর এক নির্মাণ করা হচ্ছে ফ্লাইওভার। কিন্তু এসব ফ্লাইওভার দিয়ে কি প্রকৃতপক্ষে যানজট কমেছে; নাকি বেড়েছে? জনগণের ভোগান্তি কমেছে, নাকি বেড়েছে? পরিবহন ভাড়া কমেছে, নাকি বেড়েছে?
ফ্লাইওভার প্রকল্পের নির্মাণাধীন এলাকাগুলোতে পথচারী ও যাত্রীরা সীমাহীন ভোগান্তির কবলে পড়ে অনেকে ফ্লাইওভারকে ‘অভিশাপ’ বলেও মন্তব্য করে।
যাত্রাবাড়ী-গুলিস্তান ফ্লাইওভার নির্মাণকালে সাড়ে ৪ বছরে ৩০টি জেলার লাখ-লাখ মানুষ কঠিন যানজট আর ভোগান্তি সহ্য করেছে, আমি নিজেও এর ভুক্তভোগী। কিন্তু এসব ফ্লাইওভারের কারণে যানজট তো কমেনি; বরং গাড়ি উঠা-নামার জায়গাগুলোতে যানজট লেগেই থাকছে, এমনকি প্রায় সময়ই এ জট ফ্লাইওভারের উপরে পর্যন্ত চলে যাচ্ছে। খিলগাঁও ফ্লাইওভার এবং মহাখালী ফ্লাইওভারের এমন দৃশ্য প্রতিদিনই দেখা যায়।
প্রসঙ্গতঃ যাত্রাবাড়ি ফ্লাইওভার নির্মাণের শুরুতে ৭৭৮ কোটি টাকা ব্যয়ের কথা বলা হলেও দফায় দফায় ব্যয় বেড়ে ২ হাজার ৪শ’ কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে। এই টাকায় বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় উন্নত শহর তৈরি করা যেত। শহর তৈরি হলে ঐ জেলার বহু মানুষ ঢাকায় আসার চিন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলতো, যার যার জেলাতে কর্মসংস্থান হতো, ঢাকায় যানজট কমতো, বাড়িভাড়া চাহিদা কমতো।
আমাদের যোগাযোগমন্ত্রী রাজধানীর যানজট নিরসন ‘সম্ভব নয়’ বলে সরাসরি ব্যর্থতার কথা স্বীকার করেছে। অথচ সরকার যদি লুটপাট আর অর্থের লোভ না করে প্রকৃতপক্ষে দেশের উন্নতির কথা ভেবে সুষ্ঠু পরিকল্পনা করতো, তবে যানজট কমাতে হাজার হাজার কোটি টাকার বাজেটে ফ্লাইওভার নির্মাণের ফন্দি-ফিকির না করে নগরায়নের পরিকল্পনা করতো। মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদের শাসকদেরকে দেশের উন্নতির জন্য যথাযথ পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করার তওফীক দান করুন। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে