এক নব্য ভন্ড নারী পীরের পানি পড়া সব রোগের ওষুধ!!!


০ থেকে ১০০ টাকার হাদিয়া দিলেই সব রোগ থেকে মুক্তি মেলে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় এক ভণ্ড (পীর) নারী  তেল ও পানি পড়ায়। রোগমুক্তির আশায় শত শত নারী-পুরুষ সেখানে ভিড় করছে।
মাত্র দেড় মাস আগেও এই (ভণ্ড) নারী অন্যের বাসায় গৃহপরিচারিকার (চাকরানীর) কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতো। এখন সে সবার কাছে ‘পীর মা’ হিসাবে পরিচিতি পেয়েছেন। তার কাছে সব রোগের জন্য তেল ও পানি পড়া দেন। সঙ্গে ১০-১০০ টাকার হাদিয়া ও জানের ছদগা মুরগি কিংবা ছাগল দিতে হয়।
উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের পশ্চিম বাদুরতলী গ্রামের মনসুর হাওলাদারের বাড়িই এখন এ নব্য ভন্ড পীরের চিকিৎসালয়।
স্থানীয়রা জানায়, গত এক মাস থেকে লাইলী বেগমের বাসায় মানুষের ভিড় বাড়ছে। তেল ও পানি পড়া নিয়ে সবাই চলে যাচ্ছে। প্রতিদিন গড়ে শতাধিক লোক আসে এ বাড়িতে।
নব্য পীরের মামা রুস্তুম আলী (৭০)  জানায়, টিয়াখালী গ্রামের ইউনুস খাঁ প্যারালাইসিসে আক্রান্ত ছিলো। লাইলীর তেল পড়ায় তিনি এখন ভালো হয়েছে। সে খুশি হয়ে গাজী কালুর (সিনেমার পীর) নামে একটি ছাগল দান করেছেন।
পীর লাইলী বেগম জানান, গাজী কালুর নির্দেশ মোতাবেক সে চিকিৎসা করছে। বান মারা, পেট ব্যাথা, প্যারালাইসিস, মেয়েদের নানা সমস্যাসহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা করছেন  সে।
মানুষে খুশি হয়ে তাকে মোম, আগরবাতি ক্রয়ের জন্য ১০-১০০ টাকা দিচ্ছে। এ টাকা ওরসের কাজে ব্যয় করেন বলে জানান সে।
এ ব্যাপারে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুল আউয়াল জানান, তিনি এ ঘটনা শুনেছেন।
তবে ভালো করে খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+