এক বিরল চারিত্রিক গুণ -নিজের দোষ বড় করে এবং অন্যের দোষ ছোট করে দেখা


বিশ্বে যত অনাচার ও অঘটন ঘটেছে তার মূলে রয়েছে মানুষের আমিত্ব। আমিত্বই অহংকারের সৃষ্টি করে। মানুষ এই পৃথিবীতে বেশি ভালোবাসে নিজেকে। এই আত্মভালোবাসাই মানুষকে হত্যা করে ফেলে এবং তার বিচার, বুদ্ধি ও বিবেক হ্রাস পায়। নিজের বড় ত্রুটি সে ক্ষমা করে দেয় কিন্তু অন্যের ছোট ত্রুটি সে বড় করে দেখে। নিজের দোষ সুযোগ পেলে অন্যের কাঁধে উঠিয়ে দিতেও দ্বিধাবোধ করে না। আত্মপ্রেম মানুষকে এতটাই নিচে নিয়ে যায় যে, সে নৈতিকতার বাঁধ ভেঙে ফেলতে পারে। নিজের দোষ ছোট করে এবং অন্যের দোষ বড় করে দেখা মানুষের সহজাত প্রবৃত্তি এবং পরম দৈন্যতা ও দুর্বলতা। কী করে এই হীনতা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে? সহজ সরল পদ্ধতি- সর্বক্ষণ নিজের দোষ বড় করে দেখা এবং অন্যের দোষ ছোট করে দেখলেই সব সমস্যার সমাধান। সাধনা করে এই গুণ অর্জন করতে পারলেই একজন মানুষ ক্ষমার মতো মহৎ গুণের অধিকারী হতে পারে। অন্যের বড় বড় দোষ সহজেই ক্ষমা করে দিতে পারবে।
সুতরাং নিজের দোষ বড় করে এবং অন্যের দোষ ছোট করে দেখার রীতিমত অভ্যাস করতে হবে। একদিন এই অভ্যাস গুণে পরিণত হবে।

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

  1. লজিক২০১০লজিক২০১০ says:

    নিজের দোষ বড় করে এবং অন্যের দোষ ছোট করে দেখার রীতিমত অভ্যাস করতে হবে। একদিন এই অভ্যাস গুণে পরিণত হবে। Rose

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে