এক বেদুইনের ইসলাম গ্রহন!


এক বেদু্ঈন তার কাপড়ের আস্তিত্বের ভিতরে কিছু লুকিয়ে হুযুর ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার খেদমতে হাজির হলো এবং বললো, হে মুহাম্মদ! যদি আপনি বলতে পারেন যে আমার আস্তিনের ভিতর কি আছে, তাহলে আমি স্বীকার করবো যে আপনি সত্যিকার নবী।
হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বললেন, সত্যিই তুমি ঈমান আনবে?
সে বললো, হ্যাঁ, ঠিক! আমি ঈমান আনবো।
হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বললেন, তাহলে শুনো, তুমি এক জংগল দিয়ে যাচ্ছিলে, পথের ধারে এক গাছ দেখলে, যেখানে কবুতরের বাসা ছিল। সেই বাসায় কবুতরের দুটি বাচ্চা ছিল। তুমি বাচ্চা দুটি ধরে যখন নিয়ে আসতে ছিলে, তখন স্ত্রী কবুতরটি তা দেখে তোমার উপর ঝাপিয়ে পড়ছিল তখন তুমি সেটাকেও ধরে ফেলেছ। এ মূহুর্তে সেই স্ত্রী কবুতর ও বাচ্চাদ্বয় তোমার কাছে তোমার কাপড়ের আস্তিনের ভিতর লুকায়িত আছে। বেদুইন একথা শুনে বিস্মিত হয়ে গেল এবং সঙ্গে সঙ্গে ঘোষনা করলো, আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি আল্লাহ ছাড়া কোন মাবুদ নাই, আরও সাক্ষ্য দিচ্ছি নিশ্চয় আপনি আল্লাহপাক উনার রসূল(ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ।
অতএব হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নিকট কোন কিছুই গোপন নয়। একজন অজ্ঞ বেদুইন এটা জানতো যে, যিনি নবী হবেন তিনি অদৃশ্য জ্ঞানের(ইলমে গইব) অধিকারী হবেন। কিন্তু জ্ঞানী গুনীর দাবীদার হয়ে যে আল্লাহপাক উনার রসূল হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার জ্ঞানকে অস্বীকার করে, তার থেকে আবাল, মূর্খ ,জ্ঞানহীন আর কে আছে?
Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+