এতিম রোহিঙ্গা শিশু এবং পোপ ফ্রান্সিসের আগমণ


একজন মানুষ বিপদে পড়লে কয়েক ধরনের লোক তার কাছে যায়। প্রত্যেকে যায় সাহায্য-সহানুভূতি দেখিয়ে, কিন্তু অধিকাংশর চিন্তার আড়ালে থাকে নিজের স্বার্থ উদ্ধার ।যেমন রোহিঙ্গারা বিপদে পড়েছে,
– রাজনীতিবিদরা গেছে নির্বাচনী প্রচার করতে।
– স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা গেছে কমমূল্যে স্বর্ণ কিনতে,
– নারী ব্যবসায়ীরা গেছে কমমূল্যে নারী পাওয়া যায় কি না ?
– অনেকের বাসায় কাজের মানুষ নাই, ক্যাম্পে গেছে কাজের মানুষ খুঁজতে।
এভাবে অনেকেই গেছে তার নিজের স্বার্থ উদ্ধার করতে।
এখন আমার কথা হলো- আগামী ৩০শে নভেম্বর রোহিঙ্গা পরিদর্শনে বাংলাদেশে আসবে পোপ। তার কি উদ্দেশ্য ??
পোপের কি উদ্দেশ্য আছে তা আমার জানা নাই, কিন্তু আজকে খবরে দেখি, ইউরোপীয় ইউনিয়ন গণনা শেষ করতে পেরেছে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৪০ হাজার এতিম শিশু আছে। (http://bit.ly/2iojiyg)
উল্লেখ্য, রোহিঙ্গাদের উপর হামলার উপলক্ষ ছিলো ২৫শে আগস্ট বার্মীজ নিরাপত্তা বাহিনীর উপর কথিত আরসা নামক সংগঠনের হামলা । ২৭ আগস্ট তারিখে খবর আসতে থাকে রোহিঙ্গাদের উপর পাল্টা হামলা হচ্ছে। ২৭শে আগস্ট কেউ জানে না রোহিঙ্গাদের উপর কতটুকু হামলা হবে? এবং সেই হামলার জোরে যে তারা বাংলাদেশে আসবে এটাও বোধ করি তখনও কারো জানা নাই। এবং সেই আসার পরিমাণটা যে লক্ষ লক্ষ হবে সেটাও তখন বোঝার কথা না। খোদ বাংলাদেশ সরকার ২৯ইশে আগস্ট ঘোষণা করে – “রোহিঙ্গাদের ঢুকতে দেয়া হবে না।” (http://bit.ly/2zsPdbG)
কিন্তু মজার ব্যাপার হচ্ছে, রোহিঙ্গাদের প্রতি সহানুভূতি দেখিয়ে ২৭শে আগস্ট তারিখেই বাংলাদেশে ৩ দিনের জন্য আসার ঘোষণা দেয় পোপ ফ্রান্সিস। তারিখ দেয়া হয় ৩০ নভেম্বর থেকে ২রা ডিসেম্বর (http://bit.ly/2vkQCzt)। তারমানে কি তার জানা ছিলো রোহিঙ্গাদের একটা বড় অংশ বাংলাদেশে প্রবেশ করবে ? তার কি জানা ছিলো, রোহিঙ্গাদের বিতারণ মোটোমুটি নভেম্বরের পর্যন্ত চলবে। তার কি জানা ছিলো বাবা-মাকে হত্যার কারণে একটা বিরাট জনগোষ্ঠী এতিম হবে, যাকে খ্রিস্টান মিশনারীগুলোর খাদ্য বানানো যাবে ??
বিভিন্ন যুদ্ধের বাই প্রডাক্ট এতিম শিশুদের এতিম কেন্দ্র করে খ্রিষ্টান মিশনারীদের কার্যক্রম বৃদ্ধি নতুন কিছু নয়। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় এমনটি ঘটেছে। আজকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের গণনা শেষ করা ৪০ হাজার এতিম শিশুই হয়ত তাদের মূল টার্গেট। যার আনুষ্ঠানিক কার্যক্রমের ফিতা কাটতে হয়ত ৩০শে নভেম্বর পোপ ফ্রান্সিসের আগমন।

Views All Time
1
Views Today
4
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে