কথিত নূরে মুহাম্মাদী নামের জাল হাদিসের ভয়ংকর ইতিহাস পড়ুন ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টের খন্ডনমুলক জবাব:-(১৫)


ওহাবী সালাফীদের লিংক:- http://markajomar.com/?p=8801এখন প্রশ্ন হলো হযরত জাবির রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু হতে বর্ণিত হাদিস শরীফটি মুসান্নাফ আব্দুর রাজ্জাক এই সম্মানিত হাদিস শরীফ উনার কিতাবে আছে কিনা বা নাই, এই ধরনের প্রশ্ন উত্থাপন হওযার কি কারন?

 

জবাবে বলতে হচ্ছে অনেক অনেক বছর পুর্বে দুনিয়ার সমস্ত লাইব্রেরী থেকে ইমাম আব্দুর রাজ্জাক রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার লিখিত দুই খানা পবিত্র হাদীস শরীফ উনার কিতাব “মুসান্নাফ ইবনে আব্দুর রজ্জাক” ও “জান্নাতুল খুলদ লি আব্দুর রাজ্জাক”.এই দুই পবিত্র হাদীস শরীফ উনার কিতাবে হযরত যাবির রদ্বিয়াল্লাহ তায়ালা আনহু হতে বর্নিত নুরের যে হাদীস শরীফ খানা ছিল যাতে সৃষ্টির সুচনা থেকে সমস্ত মাখলুকাতের সৃষ্টির উৎস সর্ম্পকে এবঙ মহান আল্লাহ পাক উনার হাবীব হুজুর পাক ছল্লল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উনার য়ে বেমেছাল ছানা ছিফত মুবারক করা হযেছিল সে দুইখানা হাদিস শরীফ উনার কিতাব সারা দুনিয়া থেকে গায়েব হয়ে যায়৤

 

পরবর্তিতে ১৯৭০ ইসায়ীতে মুসান্নাফ ইবনে আব্দুর রযযাক এই সম্মানিত হাদিস শরীফের কিতাব খানা প্রকাশ করা হয় এবং প্রকাশক জানাল যে, এই সম্মানিত কিতাব মুবারকের কিছু অধ্যায় হারিয়ে গিয়েছে ! যদি কারো ব্যাত্তিগত সংগ্রহে উত্ত কিতাবখানা থেকে থাকে তবে হারানো অধ্যায়গুলো সংযোজন করে যেন প্রকাশ করা হয়৤   উপরে স্কীন শট দেওয়া হলো কিতাব আকারে প্রথম প্রকাশিত মুসন্নাফ আব্দুর রাজ্জাক এই সম্মানিত হাদিস শরীফ কিতাব উনার আর সেখানে আন্ডার লাইন করা লিখা থেকেই উপরোক্ত তথ্যগুলো জানা গেছে.

 

ঠিক তার অনেক পরে ভারত বর্ষের একজন মুসলমানের ব্যাক্তিগত সংগ্রহে থাকা মুসান্নেফ ইবনে আব্দুর রজ্জাক এই সম্মানিত হাদীস শরীফের কিতাব থেকে হারানো অংশ গুলো সংগ্রহ করে ২০০৫ সালে দুবাই থেকে প্রকাশ করা হয়, আর তখনি জানা যায় যে, মুসান্নেফ ইবনে আব্দুর রজ্জাক এই সম্মানিত হাদীস শরীফ উনার কিতাবের যে অধ্যায় গুলো হারানো গিয়েছে বলে প্রকাশ করা হয়েছিল, সে অধ্যায় গুলো ছিল মহান আল্লাহপাক উনার হাবীব হুজুর পাক ছল্লল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উনার নুর মুবারক সর্ম্পকিত বড় একটি অধ্যায়! যেখানে মহান আল্লাহপাক উনার হাবিব হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত নুর মুবারক থেকে সমস্ত মাখলূকাতের সৃষ্টির সুচনা হয়েছে এবং মহান আল্লাহপাক উনার হাবীব হুজুর পাক ছল্লল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উনার বেমেছাল শান মান ফাযায়িল ফজিলত বুজুর্গী সম্মান মুবারক বর্ননা করা হয়েছে৤সুবহানাল্লাহ! আর এই অধ্যায় মুবারকটিতে বর্নিত রয়েছে হযরত জাবির রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত নুরের সম্মানিত হাদিস শরীফটি.

এখন আমার প্রশ্ন হচ্ছে, সারা দুনিয়ার মধ্যে সম্মানিত হাদীস শরীফ উনার বড় বড় কিতাব যেমন বুখারী শরীফ, মুসলিম শরীফ, ছিহাহ ছিত্তার সমস্ত কিতাব গুলি ছাড়া ও অন্যান্য বিশুদ্ধ হাদীস শরীফ উনার কিতাব এবং দুষ্প্রাপ্য ও বিশ্বখ্যাত ফিকাহ ফতোয়ার কিতাবের মধ্যে একটি কিতাব ও গায়েব হলোনা! কিন্তু কারা এবং কি উদ্দেশ্যে, ইমাম আব্দুর রজ্জাক রহমুতাল্লাহির উনার দু খানা সম্মানিত হাদীস শরীফ উনার কিতাব মুবারক সারা দুনিয়া থেকে গায়েব করে দিল৤নাউযুবিল্লাহ৤ এই দুইখানা হাদিস শরীফ উনার কিতাব থেকে পরবর্তীতে মুসান্নাফ ইবনে আব্দুর রয্যাক এই সম্মানিত হাদিস শরীফ উনার কিতাবটি পাওয়া গেলে ও অপর আরেকখানা কিতাব জান্নাতুল খুলদ লি আব্দুর রযযাক, আর পাওয়া যায় নিই৤নাউযুবিল্লাহ৤

 

 

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+