কথিত নূরে মুহাম্মাদী নামের জাল হাদিসের ভয়ংকর ইতিহাস প্‌ড়ুন্. ওহাবী সালাফীদের এই পোষ্টের খন্ডনমুলক জবাব:-(৩)


ওহাবী সালাফীদের লিংক:- http://markajomar.com/?p=880

ইবনে সা’দ ওয়াহহাব ইবনে জারীর ইবনে হাশিম হইতে, তিনি তাহার পিতা হইতে এবং আবু ইয়াযিদ মদানী হইতে বর্ননা করিয়াছেন যে আমি জানিতে পারিয়াছি, সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ আলাইহিস সালাম এক খাছআমী গোত্রের মহিলার নিকট দিয়া গমন করিবার কালে উনার সম্মানিত ললাট মুবারক বা কপাল মুবারক হইতে আসমান পর্যন্ত আলো বিচ্ছুরণকারী একটি নুর দেখিতে পাইল৤ সে সম্মানিত নুর মুবারক দেখিয়া উক্ত মহিলা সাইয়্যিদুনা আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে বলিল, আপনি কি আমার নিকটে আসিবেন? তখন সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনি বলিলেন, হ্যাঁ আমি পাথরের টুকরা গুলি ফেলিয়া দিয়া আসি৤ তিনি উহা ফেলিয়া দিয়া উনার সম্মানিত জওজুন মুকাররম সাইয়্যিদাতুন নিসাঈল আলামিন উম্মু রসুলিনা হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম উনার নিকট চলিয়া গেলেন৤ অত;পর উক্ত খাছআমী মহিলার কথা স্মরণ হইলে তাহার নিকট গেলেন!
তখন সে সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে দেখিয়া বলিলেন আপনি কি অন্য কোন সম্মানিতা (স্ত্রীর) আহলিয়ার কাছে গিয়েছিলেন? তখন সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনি বলিলেন হ্যাঁ আমি আমার সম্মানিত আজওয়াজ মুবারক উম্মু রসুলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম উনার কাছে গিয়েছিলাম৤ একথা শুনিয়া উক্ত মহিলা বলিল, তাহা হইলে আপনাকে আর আমার কোন প্রয়োজন নাই৤ আপনি আমার নিকট হয়ে যাওয়ার সময় আপনার ললাট হতে আসমান পযর্ন্ত একটি নুর মুবারক বিস্তৃত ছিল৤ (অর্থাৎ নুরে হাবীবি ছল্লল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সাইয়্যিদুনা আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার ললাট থেকে আসমান পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল৤) এখন সেই নুর মুবারক আর দেখা যাচ্ছেনা, আপনি আপনার সম্মানিতা আজওয়াজ মুবারক সাইয়্যিদাতুনা হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম উনাকে জানিয়ে দিন তিনি উনার রেহেম শরীফ উনার মধ্যে দুনিয়ার সর্বশ্রেস্ট ব্যাক্তিত্ব মুবারক উনাকে ধারন মুবারক করেছেন৤ সুবাহানাল্লাহ! ইবনে আসাকির ও এই হাদীস শরীফ বর্ননা করিয়াছেন৤(মাওলানা মুহাম্মদ কামরুজ্জামান,প্রথম প্রকাশ:-২০০৪ ইং,খাছায়িছুল কুবরা, মাতৃগর্ভে থাকাকালীন মুজিজাসমূহ অধ্যায়,পৃষ্টা নং:-৭২. বাংলা সংস্করণ)

বায়হাকী, আবু নাঈম এবং ইবনে আছাকীর হযরত ইকরামা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা বর্ননা করিয়াছেন-যে হযরত ইবনে আব্বাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনি বলেন, এক খাছআমী রূপসী মহিলা হজ্বের প্রাককালে এখানে আগমন করিত৤ তার নিকট বিভিন্ন ধরনের আচার থাকিত মনে হয় সে তাহা বিক্রি করিত৤ একবার সে সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার নিকট আসিল, তখন হযরত আবদুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে দেখিয়া খুব পছন্দ করিল৤ তখন সে মহিলাটি উনার মুবারক সান্নিধ্যে আসিতে চাহিলে, তিনি বলিলেন, আমি আসছি৤ অত:পর সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি উনার সম্মানিত জওজুন মুকাররম সাইয়্যিদাতুন নিসাঈল আলামিন উম্মু রসুলিনা হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম উনার মুবারক সান্নিধ্যে গেলেন যার ফলে মহান আল্লাহপাক উনার হাবিব হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত নুর মুবারক সাইয়্যিদাতুনা হয়রত আমিনা আলাইহাস সালাম উনার রেহেম শরীফ উনার মধ্যে মুবারক হয়ে গেল৤ ইহার পর সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উক্ত মহিলার নিকট উপস্হিত হইলে সে মহিলা বলিলেন, আপনি কে? তখন সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি বলিলেন, আমিতো সে ব্যক্তি যে আপনার কাছে আসিবার ওয়াদা করিয়া চলে গিয়েছিলাম৤ তখন মহিলা বলিলেন, নিশ্চয় আপনি সে ব্যক্তি নন. যদি আপনি সে ব্যাক্তিত্ব মুবারক হতেন! তবে আপনার ললাটের সেই নুর মুবারক কোথায়, যাহা এখন দেখা যাচ্ছে না.(মাতৃগর্ভে থাকাকালীন মুজিযাসমূহ,পৃষ্টা নং;-৭৩)

বায়হাকী এবং আবু নাঈম ইবনে শিহাব হইতে বর্ননা করেছেন যে, সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি বেমেছাল সোর্ন্দয্য মুবারক উনার অধিকারী এবং খুব ছুরত যুবক ছিলেন৤ একবার তিনি কতিপয় কুরাইশ মহিলা উনার নিকট দিয়ে যাবার কালে তাহাদের মধ্যে একজন বলিয়া উঠিল, তোমাদের মধ্যে কে এই সম্মানিত ব্যাক্তিত্ব মুবারক উনাকে বিবাহ করিয়া উনার ললাটের সম্মানিত নুর মুবারক উনার অধিকারী হইবে? ইহার পর সাইয়্যিদাতুন নিসাঈল আলামিন উম্মু রসুলিনা হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম তিনি সাইয়্যিদুনা হযরত আবদুল্লাহ যবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে নিকাহ মুবারক করেন এবং সাইয়্যিদাতুন নিসাঈল আলামিন উম্মু রসুলিনা হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম তিনি সেই সম্মানিত নুর মুবারক ধারন করেন অর্থ্যাৎ মহান আল্লাহপাক উনার হাবীব হুজুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি উনার মহাসম্মানিত আম্মা সাইয়্যিদাতুন নিসাঈল আলামিন হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম উনার রেহেম শরীফ উনার মাঝে তাশরীফ মুবারক আনেন৤(মাতৃগর্ভে থাকাকালীন মুজিযাসমূহ,পৃষ্টা নং;-৭৩)

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে