কাঁদায় শুধু অন্তরে


কাঁদায় শুধু অন্তরে

কাঁদায় শুধু অন্তরে

অন্তরে অন্তরে
কাঁদায় শুধু অন্তরে

ইমাম হুসাইন শহীদ হলেন
ওই কারবালার প্রান্তরে
এই হৃদয় বিদারক ইতিহাস
কাঁদায় শুধু অন্তরে।

দেখ!বেঈমান কুফাবাসী
করলো সব সর্বনাশী
ইমামজীকে আহবান করে
রইলো না ইমামজীর দ্বারে।

নবীজির বংশ করতে উজাড়
চায় ইয়াযীদ সৈন্য বারবার
ইয়াজিদের হুকুমে তারা
আহলে নবীকে শহীদ করে।

পানি পান করতে দেয় বাধা
ওদের কতো বড় স্পর্ধা
চিনলো না ওরা সাইয়্যিদজাদা
শিশু আছগর কাঁদেন অঝোরে।

আহলে নবী পানি পিপাসায়
কাতরান আহা ওই কারবালায়
কে পানি দিবে কাফেলায়
কাফিররা রেখেছে ঘিরে।

বিরহ বেদনা সহ্য করে
রইলেন ফোরাতের তীরে
নানাজানের ইসলামী ঝাণ্ডা
রাখলেন উঁচুতে ধরে।

তরবারি হাতে ঘোড়ায় চড়ে
যুদ্ধে যান শির উঁচু করে
খতম করতে কাফিরদেরে
ইমামজী রসূলী নূরে।

ইমামজীকে কাফেরেরা ঘিরে
বৃষ্টির মতো তীর মারে
কারবালা রক্তে রঞ্জিত
আহলে বাইত বন্দী শিবিরে।

আহলে নবী জান্নাতী ফুল
শহীদ হতে হলেন ব্যাকুল
ইলাহী করলেন কবুল
গেলেন দুনিয়া ছেড়ে।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে