কাফিররা এখনো খুশি প্রকাশ করে মুসলিম উনাদের সাথে হঠকারীতার ঘটনা নিয়ে,বিশ্ব মুসলিম কি শিক্ষা গ্রহণ করবে না?


ধোঁকাবাজি —এ জিনিসটা মুসলিম উনাদের সাথে যায় না…এটা মুসিলমান উনাদের বৈশিষ্ট্যও না। একমাত্র কাফিরদেরই স্বভাব প্রতারণা করা,ধোঁকাবাজি করা। মুসলমান উনারা কখনো ধোঁকাবাজি করে না,যারা এরূপ করবে তারা উম্মত হিসেবে সাব্যস্ত হবে না,মুসলিম থাকবে না।
কাজেই যারা সম্মানিত দ্বীন উনার মত ও পথে ইস্তিক্বামত থাকতে চায় তারা অবশ্যই এই বদ স্বভাব থেকে বিরত থাকবে। কাফিররা অলটাইম ধোঁকাবাজ আর তারা তাদের এই বদ খাছলত নিয়ে খুশি প্রকাশও করে থাকে। যার প্রমাণ পহেলা এপ্রিলের মর্মান্তিক ঘটনাটি।
আজও কাফিররা মুসলমান উনাদের সাথে প্রতারণা করে তাদেরকে শহীদ করার দিনটিতে খুশি প্রকাশ করে। নাঊযুবিল্লাহ। অথচ বিশ্ব মুসলিম কোথায় শিক্ষা গ্রহণ করবে তা না উল্টো তারাও খুশি প্রকাশ করে। নাঊযুবিল্লাহ। এ কোন নিচুতা,হীনতা…!?! এই শতকে এসে আজ মুসলিমরা বলে কাফিররা আমাদের বন্ধু, ভাই। কই তারা তো বলে না, মুসলিম হত্যার এ ঘৃণ্য দিনটিকে ঘৃণার সাথে দেখি…তারা তো খুশিই থাকে।
কাজেই মুসলিমদের উচিত অতীত থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা আর কাফিরদের সাথে তাল মিলানোর স্বভাবটা বর্জন করা।
মুসলিম উনাদের সোনালী অতীত ছিল,সম্মিলিত চেষ্টায় আবারো সে দিন ফিরিয়ে আনা সম্ভব যদি সম্মানিত শরীয়ত মুতাবিক হয় প্রতিটি পদক্ষেপ।
মহান আল্লাহ পাক যেন দয়া করে সেই সোনালী দিনগুলো আমাদের ফিরিয়ে দেন।
আমীন।
আর পূর্বের কৃত অপরাধের জন্য তো তওবা-ই যথেষ্ট। আল্লাহ পাক ক্ষমা করেন,উনি তো ক্ষমাশীলই এবং গুনাহগুলোকেও নেকীতে পরিণত করে দেন,হোক না তা পাহাড় সমান। কেননা উনিতো দয়ালু।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে