সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

কাফির নায়েকঃ শয়তানের শিং (পর্ব-৩)


কাফির নায়েক সুরা ত্ব-হা এর আয়াত শরীফ ২৫ এর অর্থ বিকৃত করে বলেছে “হে আল্লাহ পাক ! আমার মস্তিস্ককে (কেন্দ্র) প্রশস্ত করে দিন।”  সে আরবী “ছদর” শব্দের অর্থ করেছে “মস্তিস্ক” কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছে যে, বর্তমান বিজ্ঞান প্রমাণ করেছে কল্বব নয় বরং মস্তিস্কই সকল চিন্তা শক্তির উৎস। (নাউযুবিল্লাহ মিন যালিক) ( Is Quraan Word of God, from the CD-“Presenting Islaam and Clarifying Misconceptions –Lecture series by Dr.Zaakir Naik, Developed by AHYA Multi-Media- 12 Enlightening Sessions)

সূরা মুনাফিকুন আয়াত শরীফ ৩, সূরা বাক্বারা আয়াত শরীফ ৭, সুরা আন আম আয়াত শরীফ ২৫, সূরা আ’রাফ আয়াত শরীফ ১০০, সূরা ইউনুস আয়াত শরীফ ৭৪, সূরা রূম আয়াত শরীফ ৫৯  এ মহান আল্লাহ পাক অবিশ্বাসীদের কল্ববে মোহর প্রসঙ্গে বলেছেন এবং সূরা নাস এর আয়াত শরীফ ৫ মহান আল্লাহ পাক ইরশাদ করেন যে শয়তান মানুষের ছুদুর (কল্বব) এ অসওয়াসা দেয়। তাহলে এ দ্বারা প্রমাণিত হয় যে, মানুষের চিন্তাশক্তি মুলত কল্বব থেকেই। তাই সুরা ত্ব-হা এর ২৫ নম্বর আয়াত শরীফ এর অর্থ হবে, “হে আল্লাহ পাক ! আমার কল্ববকে প্রশস্ত করে দিন।”

 

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

১৬টি মন্তব্য

  1. কাফির নায়েক যে লা’নতে খাছের লক্ষ্য স্থল এটার প্রমান হলো তার কুফরী মার্কা যত সব গান্ধা বক্তব্য।
    কাফির নায়েকের অবগুন্ঠন উম্মোচনের এ উদ্যোগের ধারাবাহিকতা ব্লগবাসী দেখতে চায়।
    @১.৯২.৫ ভাই।

  2. বহুত বহুত দিন পর আপনেরে পাইলাম!! আপনার জ্বালজ্বালা করা পোষ্ট আবার পাইতে শুরু করলাম। সাথে আছি Umbrella

  3. গোমরাহ কাফির নায়েক এর
    গোমরাহি থেকে সাবধান।

  4. কাফির নায়েক সুরা ত্ব-হা-এর ২৫তম আয়াত শরীফ-এর “ছদর” শব্দের অর্থ করেছে “মস্তিস্ক” কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছে যে, বর্তমান বিজ্ঞান প্রমাণ করেছে ক্বলব নয় বরং মস্তিস্কই সকল চিন্তা শক্তির উৎস। (নাউযুবিল্লাহ মিন যালিক)
    একইভাবে আরবী ভাষা ও ব্যাকরণে নিতান্ত অজ্ঞ হওয়ার কারণে কাদিয়ানীও সূরা আহযাব-এর ৪০তম আয়াত শরীফ-এর “খতম” শব্দের মনগড়া ও বিভ্রান্তিকর অর্থ করে। সে “খতম” শব্দের অর্থ করেছিল “মহর”। (নাউযুবিল্লাহ মিন যালিক)
    তাহলে এটা দিবালোকের মত সুস্পষ্ট যে, আজকের এই কাফির নায়েক আর কাদিয়ানীর মধ্যে কোন তফাৎ নেই বরং এই কাফির নায়েক হচ্ছে সেই কাদিয়ানীর উত্তরসূরী যারা যুগে যুগে বিভিন্ন রূপে-অবয়বে (তবে একই মতাদর্শে) আত্মপ্রকাশ করে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে