সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

কাফির নায়েকঃ শয়তানের শিং (পর্ব-৪)


কাফির নায়কে কুরআন শরীফ এর আয়াত শরীফ এর সাথে কবির দাস (ভারতের তথাকথিত এক মুসলমান যে কিনা বাউলদের মত ইসলাম ধর্ম এবং হিন্দু ধর্মকে এক করার অপচেষ্টা চালিয়েছে) এর শ্লোকের তুলনা করেছে। (নাউযুবিল্লাহ মিন যালিক) (concept of God in major religions- from the CD-“Presenting Islaam and Clarifying Misconceptions –Lecture series by Dr.Zaakir Naik, Developed by AHYA Multi-Media- 12 Enlightening Sessions)
মহান আল্লাহ পাক সূরা ইমরানের ১৯ নম্বর আয়াত শরীফ এ ইরশাদ করেন, “নিশ্চয়ই আল্লাহ পাক, উনার নিকট একমাত্র মনোনীত দ্বীন হচ্ছে ইসলাম।” আবার একই সূরার ৮৫ নম্বর আয়াত শরীফ এ আল্লাহ পাক ইরশাদ করেন, “যে দ্বীন ইসলাম ব্যতীত অন্য কোন ধর্ম বা মতবাদের নিয়ম-নীতি গ্রহণ করবে সেটা তার থেকে গ্রহণ করা হবে না এবং সে পরকালে ক্ষতিগ্রস্থদের অর্থাৎ জাহান্নামীদের অন্তর্ভূক্ত হবে।” তাহলে একজন মুসলমান কি করে কুরআন শরীফ এর সাথে বাতিল ধর্মের সাদৃশ্য খুজতে পারে?

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

১৪টি মন্তব্য

  1. ইনশাআল্লাহ কাফের শিং ভেঙ্গে দেয়া হবে। Hammer Hammer Hammer

  2. Rapid boy says:

    এর ইবলিশি ধ্বংস হোক ।এর দ্বারা সবচে ক্ষতিগ্রস্হ হচ্ছে শিক্ষার্থী যুবসমাজ ।তারা একে তাদের আইডল মনে করছে ।সুন্নতের ধার ধারতে হবেনা অথচ ইসলাম পালিত হবে তাদের ভাবনাটা অনেকটা এমন ।

  3. কাফির নায়েক তার তথাকথিত কুফরী বক্তব্য প্রদানের সময় যে আয়াত শরীফ থেকে উদ্ধৃতি দেয় তা হলো সূরা আল ইমরান-এর ৬৪তম আয়াত শরীফ। সে মহসিন খানের ইংরেজী অনুবাদ থেকে উদ্ধৃতি দেয় – come to common terms As between us and you.
    মূলত: তার উদ্দেশ্য ইসলাম-এর মাহাত্ম্য উল্লেখপূর্বক দ্বীনি দাওয়াত দেয়া নয় বরং ইসলাম ধর্মের সাথে অন্য কুফরী মতবাদগুলোর তুলনা করা। আর এই তুলনাকে বৈধ প্রমাণের জন্য সবসময় সূরা আল ইমরান-এর ৬৪তম আয়াত শরীফ-এর উদ্ধৃতি দেয়।
    যার কারণে কাফিরটা কুরআন শরীফ-এর আয়াত শরীফ-এর সাথে কবির দাসের শ্লোকের তুলনা করার মতো স্পর্ধা দেখিয়েছে। আশা করা যায় ইসলামের নামে এই জঞ্জাল অচীরেই মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার ওসীলায় নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।

  4. raseldk says:

    এরা মানুষকে ইসলামের কখা বলে, মুসলমানদের মাঝে বদ আকিদা প্রবেশ করাচ্ছে।

  5. আল্লাহ পাক আমাদের সবাইকে এই শয়তানের সিং কাফের নায়েক থেকে হেফাজত করুন। আমীন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে