কারবালার হৃদয় বিদারক ইতিহাস-১


মুখবন্ধ

সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন্ নাবিইয়ীন, নূরে মুজাসামম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র আহলে বাইত ও আওলাদগণকে মুহব্বত করা প্রতিটি ঈমানদারের জন্য ফরয-ওয়াজিব। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আহলে বাইত ও আওলাদে রসূলগণকে মুহব্বত করার পরিবর্তে হিজরী ৬১ সনে তথাকথিত মুসলমানেরা পার্থিব লোভ লালসার বশবর্তী হয়ে কারবালার প্রান্তরে আহলে বাইত-এর উজ্জ্বল নক্ষত্র সাইয়্যিদুশ শুহাদা হযরত ইমাম হুসাইন আলাইহিস সালাম, উনাকে সপরিবারে শহীদ করে। উনার শাহাদাতের পূর্বাপর ঘটনাবলীর চেয়ে নির্মম, লোমহর্ষক, নৃশংসতম ও হৃদয় বিদারক অপর কোন ঘটনা ইসলামের ইতিহাসে আর নেই। হক্ব প্রতিষ্ঠার জন্য আওলাদে রসূল হযরত ইমাম হুসাইন আলাইহিস সালাম উানর বীরত্বপূর্ণ শাহাদাত এবং পাপিষ্ঠ ইয়াযীদের নৃশংসতার অনন্য দলীল হিসেবে এ ঘটনাকে উপজীব্য করে পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষায় বহু ইতিহাস ও সাহিত্য রচিত হয়েছে।

বাংলা সাহিত্যেও কারবালার কাহিনী সর্বস্ব পুঁথি, শোকগাঁথা, প্রবন্ধ, কবিতা ইত্যাদি রচিত হয়েছে। যার অধিকাংশই সাধারণ মুসলমানগণের ঈমান-আক্বীদা বিধ্বংসী। বিশেষ করে বাতিল ফিরক্বা শিয়া সম্প্রদায়ভুক্ত তথাকথিত সাহিত্যিক মীর মোশাররফ হোসেনের ‘বিষাদ সিন্ধু’ সরলপ্রাণ মুসলমানগণের কাছে কারবালার ঘটনার ইতিহাসরূপে পরিচিতি লাভ করেছে। অথচ এ বইটির প্রতিটি পৃষ্ঠা বেয়াদবী ও কুফরী আক্বীদাতে ভরপুর। এ সকল কুফরী আক্বীদা, উদ্ভট কল্পকাহিনী ও মিথ্যার বেড়াজাল থেকে সরলপ্রাণ মুসলমানদের ঈমান-আক্বীদাকে হিফাযতের নেক বাসনায় যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল, ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম “কারবালার হৃদয় বিদারক ইতিহাস” শিরোনামে নির্ভরযোগ্য ও দলীল-আদিল্লাহসমৃদ্ধ প্রবন্ধ ১৪৩০ হিজরী সনের মুররমুল হারাম মাস উপলক্ষে পৃথিবীর সমস্ত দেশ থেকে পঠিত একমাত্র আন্তর্জাতিক পত্রিকা “দৈনিক আল ইহসান”-এ ধারাবাহিকভাবে পত্রস্থ করেন। এতে কারবালার হৃদয়গ্রাহী, মর্মস্পর্শী ঘটনার বর্ণনা, আহলে বাইত-এর শাহাদাত পরবর্তী ঘটনা ও নূরানী পরিবার পরিজনের সাথে ইয়াযীদী বাহিনীর পাশবিকতা ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ এবং এ ঘটনা থেকে শিক্ষণীয় বিষয়ের বর্ণনা খুবই সংক্ষেপে অতি চমৎকারভাবে প্রামাণ্য উদ্ধৃতিসহ উপস্থাপন করা হয়েছে।

উক্ত তথ্যসমৃদ্ধ রচনা পাঠ করে দেশ-বিদেশের অগণিত পাঠক মুগ্ধ হন এবং মুসলমানগণের ঈমান-আক্বীদা হিফাযতের জন্য এটি কিতাব আকারে প্রকাশের জন্য বার বার অনুরোধ জানান। তাদের সে অনুরোধের প্রেক্ষিতে  কিতাবখানা প্রকাশ করা হয়। আশাকরি বাংলা ভাষাভাষী মুসলমানগণ কিতাবখানা পাঠ করে কারবালার প্রকৃত ইতিহাস জানতে পারবেন এবং আহলে বাইত ও আওলাদে রসূলগণের প্রতি মুহব্বত পোষণ করার ফযীলত ও মর্যাদা বুঝতে পারবেন। সাথে সাথে উক্ত ঘটনা সম্পর্কিত কুফরী আক্বীদাসমৃদ্ধ পুস্তক পাঠ থেকে বিরত থেকে নিজেদের ঈমান-আক্বীদা হিফাযত করতে পারবেন। ইনশাআল্লাহ সম্পূর্ণ কিতাবটি সবুজ বাংলা ব্লগে ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করা হবে।

আল্লাহ পাক হযরত মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার ওসীলায় সকল প্রকার বাতিল আক্বীদা ও বদ মাযহাব থেকে সবাইকে হিফাযত করুন। (আল্লাহুম্মা আমীন)

Views All Time
1
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+