কিতাব পরিচিতি: ৪ উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম
উম্মু রসূলিনা (হযরত মা আমিনা আলাইহাস সালাম) উনার উপর লিখিত কোন বই কে পড়েছেন আমি জানিনা। তবে ইতোপূর্বে কলেবরে ছোট কিন্তু এত ঐতিহাসিক তথ্য উপস্থাপিত বই আমার পড়া হয়নি। লেখা হয়েছে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত মাতা (উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) উনাকে নিয়ে। সুবহানাল্লাহ!
আমার “আন নিসবাতুল আযীমাহ বাইনা ওয়ালিদাই রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম” কিতাবখানি পড়া থাকায় মনে হচ্ছিল অনেক তথ্যই জানা। অথচ ভাল করে মনোনিবেশ করলে দেখা যায় অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্যই সন্নিবেশিত করা হয়েছে এই কিতাবে। বিশেষ করে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত পিতা-মাতা আলাইহিমাস সালাম উনারা আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের কোন স্তরে অবস্থান করছেন এবং উনাদের আলোচনা করলে, পড়লে যিন্দেগীর সমস্ত গুনাহখাতা মাফ হয়, রহমত-বরকত পাওয়া যায়, নেক ইচ্ছা পূরন হয় এবং বিশেষ করে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সঙ্গে নিসবত স্থাপিত হয় এ বিষয়গুলো এসেছে। উনার নসব নামা এবং নাম মুবারকের তাৎপর্য সবই এসেছে।
নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু তিনি যখন উনার সম্মানিতা মাতা আলাইহিমাস সালাম উনার পবিত্র রেহেম শরীফে অবস্থান করছিলেন তখন ৯ জন নবী ও রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারা এসে উনাকে সালাম জানিয়ে সুসংবাদ প্রদান করে যান, সেই বর্ণনাও এসেছে। উনার যাওজুল মুকাররম (স্বামী) সাইয়্যিদুনা হযরত যাবীহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি মহান আল্লাহ পাক উনার দিদারে চলে যাবার পর একটি কাছিদা শরীফ পাঠ করেছিলেন এই কাছিদা শরীফখানিও এসেছে বইটিতে।
আমি সেই কাছিদার এক বাংলারূপ পাঠকদের জন্য হাদিয়া করলাম-

কঙ্করময় বাতহা উপত্যকা শূন্য হয়েছে
হারিয়ে সম্মানিত হাশেমী বংশের প্রাণ।
শোরগোল-কোলাহল নিস্তব্ধতা শেষে
সাড়া দিয়েছেন ঐ ইলাহীর আহ্বান ।
পবিত্র আহবানে সাড়া দিতে, করেছেন নিজেকে সমর্পণ।
উনার উপমা উনি, মর্যাদায় অনন্য, নেই দ্বিতীয় উদাহরণ।
বেদনাদায়ক ছিল সেই সন্ধ্যা,
ছিল হৃদয়ে তীব্র-শূন্য আবেগ।
শুয়ে শেষ বিছানায় গমন ক্ষণে
হৃদয়ে জমেছিল এক আকাশ মেঘ।
যদিও চলে যেতে হয়েছে উনাকে
ক্ষণস্থায়ী এই পৃথিবী ছেড়ে।
কিন্তু উনার চলে যাওয়ায় হবেনা রোধ
রইবে কীর্তি অনন্তকাল জুড়ে।

এই কিতাবখানি প্রকাশ করেছেন মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ গবেষণা কেন্দ্র। প্রথম প্রকাশ ১৪৩৬ হিজরি সালের, যিলক্বদ শরীফ মাসে। সুখপাঠ্য এই কিতাবখানি সকলের সংগ্রহে এক কপি থাকা প্রয়োজন বলে আমি মনে করি। বইটি পেতে চাইলে ০১৭১০-৩২০৪১২,০১৭১৭-২২৬৬৬৪ এই নাম্বার সমূহে অথবা রাজারবাগ শরীফের বিক্রয় কেন্দ্রে যোগাযোগ করা যেতে পারে ।

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে