কুরআন শরীফ পুড়িয়ে ইসলাম হেফাযত করছে হেফাজতীরা


হেফাজতীদের  সন্ত্রাসী কায়দায় ধ্বংসযজ্ঞের হাত থেকে রেহাই পায়নি কুরআন শরীফ, হাদীছ শরীফ -এর দোকানগুলো। বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ পাশে কুরআন শরীফ, হাদীছ শরীফ -এর ৮২টি দোকান পুড়িয়ে ছাই করে দিয়েছে হেফাজতের লোকজন। সোমবার সকালে মতিঝিল, পল্টন, শাপলা চত্বর, বায়তুল মোকাররম ঘুরে ধ্বংসস্তূপের স্পষ্ট চিহ্ন পাওয়া গেছে। এর মধ্যে বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ পাশে থাকা ধর্মীয় গ্রন্থের মার্কেটে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে হেফাজতীরা। তাদের সহিংসতায় বেশ কয়েকজন মানুষ নিহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

দোকানি নুরুল আমিন বলেন, “আমার দোকানে কুরআন শরীফ, হাদীছ শরীফ সহ বিভিন্ন ধর্মীয় গ্রন্থ ছিল। রবিবার সকাল থেকেই আমি দোকানে ছিলাম। হেফাজতের লোকজন কর্মসূচি শুরু করলে পুলিশ এসে আমাদের জানায়, এখান থেকে সরে যেতে হবে। আমরা দোকান বন্ধ করে চলে যাই। পরে শুনি তারা আমাদের সব দোকান জ্বালিয়ে দিয়েছে।”

ব্যবসায়ী মুসা বলেন, মাথায় টুপি, গায়ে পাঞ্জাবি পরা লোকজন এসে দোকানে পেট্রোল ঢেলে তাতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। তারা কুরআন শরীফ, হাদীছ শরীফ  পুড়িয়ে দিয়েছে।”

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+