ক্ষতিকর ওয়ার্মের দ্বারা মায়ানমারের সাইবার ওয়ার্ল্ড ধ্বংসের মুখে, AVG অ্যান্টিভাইরাস কোম্পানির কাছে সাহায্যের আবেদন!!!


জুন ২৩, প্রযুক্তি ডেস্ক,:সম্প্রতি বাংলাদেশ ও মায়ানমারের মধ্যে চলমান সাইবার যুদ্ধে বাংলাদেশ শুরুতে বীরদর্পে লড়াই চালালেও বর্তমানে বেশ পিছিয়ে পড়েছে। বাংলাদেশের হ্যাকার গ্রুপগুলো নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ায় এমনটা হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সাইবার আর্মি (BANGLADESH CYBER ARMY) মায়ানমারের হ্যাকারদের সাথে শান্তি চুক্তি করতে চায় বলে এক্সপায়ার সাইবার আর্মি (3xp1r3 cyber army) দাবী করে এবং দুই হ্যাকার গ্রুপ দুই মেরুতে অবস্থান করে। এক্সপায়ার সাইবার আর্মি হ্যাকিং বন্ধ রাখে এতে সাইবার যুদ্ধে মায়ানমার এগিয়ে যায়। দেখা যাচ্ছে এইপর্যন্ত মায়ানমার বাংলাদেশের প্রায় ২০০ এর বেশি ওয়েবসাইট হ্যাক করে যেখানে বাংলাদেশ হ্যাক করেছে ১০০ এর কিছু বেশি ওয়েবসাইট। অথচ ভারতের সঙ্গে সাইবার যুদ্ধে বাংলাদেশ ভারতের ২০০০০ হাজারেরও বেশি ওয়েবসাইট হ্যাক করে তাদের পরাজিত করে। তবে এরজন্য বাংলাদেশি হ্যাকার গ্রুপগুলো পুরোপুরি দায়ী নয়। কারন বাংলাদেশ সরকারের ওয়েবসাইট গুলো পুরাতন জুমলা দিয়ে করা এবং বারবার হ্যাক হওয়া সত্তেও সরকার ঐ ওয়েবসাইট গুলোর পর্যাপ্ত সিকিউরিটির ব্যবস্থা করেনি। এতে মায়ানমারের হ্যাকাররা এগুলো সহজে হ্যাক করতে পেরেছে।

তবে বাংলাদেশি হ্যাকারদের সাম্প্রতিক কর্মকান্ডে মনে হচ্ছে হ্যাকার গ্রুপগুলো নিজেদের মধ্যে ঐকমত্যে পৌছেছে। বাংলাদেশ সাইবার আর্মি, বাংলাদেশ ব্ল্যাক হ্যাট হ্যাকারস, বাংলাদেশ এ্যাননিমাস তাদের সাইবার যুদ্ধ পুরোদমে শুরু করেছে। তবে সবচেয়ে বড় খবর হল সম্প্রতি বাংলাদেশের হ্যাকার গ্রুপগুলোর সাথে যোগ দিয়েছে তুরস্ক, সৌদিআরব, সুদান, ইরান, ইন্দোনেশিয়া, রাশিয়ার হ্যাকাররা। এতে পু্রোদমে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ ও মায়ানমারে সাইবার যুদ্ধ। তাদের সম্মিলিত আক্রমনে মায়ানমারের সাইবার স্পেস আবার বিপাকে পড়েছে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্ল্যাক হ্যাট হ্যাকারস এর তৈরি super ওয়ার্ম(যা নিজেই বংশ বিস্তার করতে পারে)  মায়ানমারের সাইবার স্পেসে ছড়িয়ে গেছে। এতে মায়ানমারের সাইবার স্পেস বেশ বিপাকে পড়েছে। মায়ানমার সম্প্রতি এভিজি এ্যান্টি ভাইরাস নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের কাছে রিপোর্ট করেছে এবং এই ওয়ার্ম থেকে মুক্তির জন্য সাহায্যের আবেদন করেছে।

মায়ানমারের হ্যাকার গ্রুপগুলো সম্প্রতি মুভফোরওয়ার্ল্ড-কে হ্যাক করার হুমকি দিয়েছে। মায়ানমারের হ্যাকারদের বিরুদ্ধে সংবাদ তুলে ধরায় তাদের ফেইসবুক পেইজে হ্যাক করার জন্য তৈরি তালিকায় মুভফোরওয়ার্ল্ড কে প্রথম সারিতে রাখা হয়েছে। অপারেশন রহিঙ্গা ও আরও অনেক মায়ানমার হ্যাকারদের পেইজ ঘুরে দেখা গেছে মুভফোরওয়ার্ল্ড কে তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করা হয় এবং এর সদস্যরা মুভফোরওয়ার্ল্ড হ্যাক করার আবেদন জানায়।

 

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে