গণতন্ত্র’ পদ্ধতিটা যে ভুল, প্রথম আলোর এই অনলাইন ভোট তার প্রমাণ।


গণতন্ত্র’ পদ্ধতিটা যে ভুল, প্রথম আলোর এই অনলাইন ভোট তার প্রমাণ।

গার্মেন্টস শ্রমিকদের মজুরী ১৬ হাজার টাকা করার দাবির পক্ষে বলেছে ৮০% শতাংশ মানুষ ।

এবং বিপক্ষে বলেছে মাত্র ২০% শতাংশ মানুষ।

মূলত: পোষাক শিল্পে বাংলাদেশ এত এত অর্ডার পাওয়ার মূল কারণ কম শ্রমিক মজুরী।

সেই শ্রমিক মজুরী যদি বাড়িয়ে দেয়া যায়, তবে অটোমেটিক এ শিল্প ধসিয়ে দেয়া সম্ভব।

শ্রমিকদের বেতন ১৬ হাজার টাকা দেয়া যাবে, কিন্তু বাংলাদেশের গার্মেন্টস শিল্প লাটে উঠবে। তখন সকল শ্রমিকই বেকার হয়ে যাবে।

একটা কৌশল হচ্ছে- কারো অধিক পক্ষে বলে তার ক্ষতি করা। যারা গার্মেন্টস শ্রমিকদের ১৬ হাজার টাকার করার পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছে, আদতে তারা যে গামেন্টস শ্রমিকদের খারাপ চায়, এটাই বুঝতে পারছে না গার্মেন্টস শ্রমিকরা ও অধিকাংশ সাধারণ মানুষ। প্রথম আলোর অনলাইন ভোটের রেজাল্টই তার প্রমাণ।

আসলে যারা গণতন্ত্র সিস্টেমটা বের করেছে, তারা সাধারণ মানুষকে কৌশলে ধোকা দিয়েছে।

‘ক্লাস-১ পাশ করার মানুষ, আর মাস্টার্স পাশ করা মানুষ, দুইজনকে সমান করে দিয়েছে।

মেধা’কে অস্বীকার করছে। অথচ দুইজনের মন-মানসিকতা বা বোঝার ক্ষমতা কখনই এক হবে না।

কিন্তু দুজনের মতকে সমান করে, কোয়ালিটি ও কোয়ানটিটির মধ্যে দ্বন্দ্ব ঘটিয়ে দিয়েছে। একটি জাতিকে ধ্বংস করার জন্য এত সহজ সিস্টেম আর থাকতে পারে না।

মুসলমানরা যতদিন গণতন্ত্র নামক এ পদ্ধতিটা বর্জন করতে না পারবে, ততদিন তারা উন্নতি করতে পারবে না।

……….সংগৃহীত

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে