গুনাহসমূহ ক্ষমা করিয়ে নেয়ার মাস শেষ হয়ে যাচ্ছে…


“সমস্ত আদম সন্তান গুনাহগার,তন্মধ্
যে উত্তম ঐ ব্যক্তি যে বেশি বেশি ইস্তেগফার করে।”
.
“গুনাহ হতে তওবাকারী ঐ ব্যক্তির ন্যায় যার কোনো গুনাহই নেই।” সুবহানাল্লাহ।
.
“তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করো। নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক অতিশয় ক্ষমাশীল ও দয়ালু।” সুবহানাল্লাহ
রমাদ্বান মাস গুনাহখতা ক্ষমা করিয়ে নেয়ার মাস। এ সম্মানিত মাসটি খুব দ্রুতই ফুরিয়ে যাচ্ছে। আবার একজন তওবাকারী ব্যক্তিরও কতো সম্মান। হয়তো মাস শেষে আমরা দুনিয়ায় থাকবো কিন্তু গুনাহখতা সহ!নাঊযুবিল্লাহ।
হয়তো পরবর্তী রমাদ্বান মাস আর পাবো না। তাহলে সুযোগ আর রইলো কই!?!
যে ব্যক্তি রমাদ্বান মাস পেলো অথচ গুনাহসমূহ ক্ষমা করিয়ে নিতে পারলো না, তার জন্য হালাক্বী।অর্থাৎ সে ধ্বংস! নাঊযুবিল্লাহ!
ধ্বংস মানে তো ইহকাল পরকাল সব শেষ,মানে পরণতি জাহান্নামের দিকে! নাঊযুবিল্লাহ।
মহান আল্লাহ পাক আমাদের দয়া করে সুযোগ দিলেন। আমরা কি সুযোগ কাজে লাগাবো না???
মহান আল্লাহ পাক উনিতো ক্ষমা চাইলেই ক্ষমা করেন।
তাহলে আমাদের তো উচিত এ কয়টি দিন বেশি বেশি করে বন্দেগী করে,কান্নাকাটি করে,কৃত অপরাধসমূহের জন্য বেশি বেশি ক্ষমা চাওয়া এবং পরবর্তীতে আর সেগুলা না করার দৃঢ় সংকল্প করা।
মহান আল্লাহ পাক যেন আমাদের সকলকেই হেফাযত করেন এবং উনার দয়ার চাদরে আবৃত করে ক্ষমা করে দিয়ে উনার খাছ সন্তুষ্টি রেযামন্দি আমাদের ভিক্ষা দেন।আমীন।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে