সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

ছবি ও ছবি সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয় হারাম


মানুষের ছবি, জীব বা প্রাণীর ছবি, প্রতিকৃতি, পুতুল আঁকা, ছাপা, তোলা সবই হারাম। হযরত উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছাহ ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার থেকে বর্ণিত রয়েছে, সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, যারা প্রাণীর ছবি তোলে, আঁকে ক্বিয়ামতের দিন তাকে কঠিন শাস্তি দেয়া হবে।
ফক্বীহুল উম্মত হযরত আব্দুল্লাহ বিন মাসউদ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বর্ণনা করেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,
قَالَ اللهُ تَعَالى وَمَنْ اَظْلَمُ مِمَّنْ ذَهَبَ يَخْلُقُ كَخَلْقِىْ
অর্থ: মহান আল্লাহ পাক তিনি বলেন, যে ব্যক্তি আমার সৃষ্টির সাদৃশ্য কোন কিছু সৃষ্টি করার চেষ্টা করে, তার চেয়ে বড় যালিম বা পাপী আর কে হতে পারে? (বুখারী শরীফ, মুসলিম শরীফ)
পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে আরো ইরশাদ মুবারক হয়েছে-
لَا تَدْخُلُ الْمَلاَئِكَةُ بَيْتًا فِيْهِ كَلْبٌ وَلَا تَصَاوِيْرُ
অর্থ: যে ঘরে কুকুর অথবা প্রাণীর ছবি-মূর্তি থাকে সেখানে রহমতের ফেরেশতা আলাইহিমুস উনারা প্রবেশ করেন না।
অতএব, ছবি তোলা ও তোলানো থেকে বিরত থাকতে হবে এবং ছবি, পুতুল মূর্তি ইত্যাদি ঘরে রাখা থেকেও বিরত থাকতে হবে। যেই ঘরে বা যেখানে ছবি, মূর্তি, পুতুল, ম্যানিকীন ইত্যাদি থাকে সেখানে রহমত থাকে না এবং সেখানে নামায পড়লে তা শুদ্ধ হবে না।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে