সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খিত। ব্লগের উন্নয়নের কাজ চলছে। অতিশীঘ্রই আমরা নতুনভাবে ব্লগকে উপস্থাপন করবো। ইনশাআল্লাহ।

ছবি নিয়ে সরকারী আমলাদের বাড়াবাড়ি কেন?


সরকার কি জোরপূর্বক মুসলমানদেরকে কাফির বানাতে চায়? সরকার কি মুসলমান না???
সরকার কি মহান আল্লাহ পাক উনার পবিত্র আয়াত শরীফ বিশ্বাস করে না?
مَن لَّمْ يَحْكُم بِمَا أَنزَلَ اللهُ فَأُولَئِكَ هُمُ الْكَافِرُونَ (৪৪)
অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক তিনি যা নাযিল করেছেন, সেই অনুযায়ী যারা আদেশ করে না, তারাই কাফির।” (সম্মানিত সূরা মায়িদা শরীফ : সম্মানিত আয়াত শরীফ ৪৪)
مَن لَّمْ يَحْكُم بِمَا أَنزَلَ اللهُ فَأُولَئِكَ هُمُ الظَّالِمُونَ (৪৫)
অর্থ: “মহান আল্লাহ পাক তিনি যা নাযিল করেছেন, সেই অনুযায়ী যারা আদেশ করে না, তারাই জালিম।” (সম্মানিত সূরা মায়িদা শরীফ : সম্মানিত আয়াত শরীফ ৪৫)
উক্ত পবিত্র আয়াত শরীফ বিশ্বাস করলে কি করে মহান আল্লাহ পাক উনার আদেশের বিরুদ্ধে হুকুম করে???
কিভাবে মুসলমান উনাদেরকে ছবি তুলতে বাধ্য করে???
অথচ মহান আল্লাহ পাক সম্মানিত সূরা হজ্জ্ব শরীফ উনার ৩০ নাম্বার সম্মানিত আয়াত শরীফ উনার মধ্যে বলেন,
فَاجْتَنِبُوا الرِّجْسَ مِنَ الْأَوْثَانِ
অর্থ: “ছবির অপবিত্রতা থেকে বেঁচে থাক।”
এবং সম্মানিত হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বলা হয়েছে, “প্রত্যেক ছবি তুলনেওয়ালা জাহান্নামী।” (মুসলিম শরীফ)
তাহলে সরকার কি মহান আল্লাহ পাক উনার নাফরমানী করিয়ে মুসলমান উনাদেরকে জাহান্নামী বানাতে চায়?
বি: দ্র: সরকার বাধ্য করছে যেকোনো কাজেই ছবি তুলতে। এখন মোবাইলে কথা বলতে হলে, বাসা-বাড়িতে থাকতে হলে ছবি দিতে হবে। যে মহিলা পর্দা করে, ছবি তুলে না আবার ছবি তোলার মতো হারাম কাজ করতেও চান না ……..
সেসব পর্দানিশীন মহিলা কি করবে?
সরকারের কুফরী কথা মেনে কি পাপ কাজে লিপ্ত হবে? নিজের ঈমান হারাবে?
নাকি মহান আল্লাহ পাক উনার আদেশ মানবে?

Views All Time
3
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে