জাগো হে মুসলিম, রুখে দাঁড়াও! গৌরগোবিন্দ ও বল্লাল সেনের চেলারা পরিবেশের অজুহাত দিয়ে মুসলমানদের পবিত্র কুরবানী নিয়ে চক্রান্ত করছে


মহান আল্লাহ্ পাক উনার মুবারক আদেশে সৃষ্টির শুরু থেকে মুসলমানগণ উনারা মহাসম্মানিত পবিত্র কুরবানী মুবারক প্রতিটি ঘরে ঘরে, পাড়ায়-পাড়ায়, মহল্লায়-মহল্লায় করে আসতেছেন। প্রতিটি ঘরে ঘরে কুরবানী করলে পরিবেশ দূষিত হয়- এধরনের কথা আমরাতো কখনো শুনিই নাই। এমনকি আমাদের বাপ-দাদা পূর্বপুরুষরাও এধরনের কথা শুনেন নাই। সেটাই আমাদের নবীজি বলেছেন,
“আখিরী যামানায় বহু সংখ্যক মিথ্যাবাদী দাজ্জাল বের হবে। তারা তোমাদের নিকট এমন সব (মিথ্যা, মনগড়া, দলীলবিহীন ও বিভ্রান্তিকর) কথা উপস্থাপন করবে, যা তোমরা তো শুনো নাই এবং তোমাদের বাপ-দাদারাও কখনো শুনেননি। সাবধান! তোমরা তাদের কাছ থেকে দূরে থাক এবং তাদেরকেও তোমাদের কাছ থেকে দূরে রাখ। তাহলে তারা তোমাদেরকে গোমরাহ্্ করতে পারবে না এবং তোমাদেরকে ফিৎতনায় ফেলতে পারবে না।” (মুসলিম শরীফ, মিশকাত শরীফ)
কাজেই ভারতীয় হিন্দু-মুশরিকদের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে যেসব গৌরগোবিন্দ ও বল্লাল সেনের চেলারা পরিবেশের অজুহাত দিয়ে মুসলমানদের মহাসম্মানিত পবিত্র কুরবানী নিয়ে চক্রান্ত করছে, তাদেরকে চিহ্নিত করে রাখুন। তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান।
এধরনের দাজ্জালে-কায্যাব থেকে দূরে থাকবেন এবং তাদেরকে দূরে রাখবেন। মূলতঃ তাদের উদ্দেশ্য হলো ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য ভারতীয় হিন্দু-মুশরিকদের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে মুসলমানদেরকে কুরবানী করাকে বাধাগ্রস্ত করা।
কাজেই সরকারকে বুঝতে হবে, এই চক্রান্তটা হচ্ছে ভারতীয় হিন্দু ও আন্তর্জাতিক ইহুদীদের। সেই সাথে সরকারকে এটাও বুঝতে হবে যে, প্রশাসনে ঘাপটি মেরে থাকা ওই চক্রটি পরিবেশের অজুহাত দিয়ে এই সোনার বাংলায় একটি অরাজক ও বিশৃঙ্খল পরিবেশ তৈরি করতে চায়। অতএব সরকারের দায়িত্ব সম্মানিত কুরবানী উনার বিরোধী সমস্ত ষড়যন্ত্র কঠোর হস্তে দমন করা।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে