জামাত-শিবির নিষিদ্ধের দাবিতে পতাকা মিছিল


যুদ্ধাপরাধের বিচার দ্রুত নিষ্পত্তি ও মওদুদীবাদী জামাত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবিতে রাজধানীতে পতাকা মিছিল হয়েছে।

গতকাল ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীম (সোমবার) শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে ‘বাংলাদেশ রুখে দাঁড়াও’ ব্যানারে এই মিছিল বের হয়।
মিছিলের আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সংগঠনটির আহ্বায়ক মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এম এম আকাশ, নাট্য সংগঠক নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, রামেন্দু মজুমদার ও ডা. সারোয়ার আলী বক্তব্য দেয়।
যুদ্ধাপরাধের বিচারে সন্তোষ প্রকাশ করে সুলতানা কামাল বলেন, “এখনো যাদের বিচার হয়নি, আমরা চাই সুষ্ঠু বিচারের মাধ্যমে তারা যেন তাদের প্রাপ্য শাস্তি পায়।”
দেশে নাস্তিক্যবাদী ও ইসলাম বিদ্বেষী ব্লগার ও কথিত মুক্তমনা লেখকদের পক্ষ নিয়ে সুলতানা কামাল বলেন, “একাত্তরে যারা বাঙালি জাতিকে মেধাশূন্য করেছে, তারাই এখন ভিন্ন নামে মুক্তমনা লেখকদের হত্যা করছে।”
এম এম আকাশ বলেন, “জামাত-শিবির একটি সন্ত্রাসী ও সন্ত্রাসবাদী সংগঠন। শীঘ্রই এদেরকে নিষিদ্ধ করতে হবে।”
সমাবেশ থেকে একাত্তরে জাতিকে মেধাশূন্য করার নীলনকশা বাস্তবায়নে বুদ্ধিজীবীদের হত্যার দায়ে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত দুই আল-বদর নেতা আশরাফুজ্জামান খান ও চৌধুরী মুঈনুদ্দীনকে দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসি কার্যকর করার দাবি জানানো হয়।
এছাড়া জামাত-শিবিরের আর্থিক উৎস বন্ধ করতে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানায় বক্তারা।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে