জালিমদের খেলাধূলা দেখে মুসলমান কি করে ফূর্তি করে?


যে সময়ে মুসলমানরা খেলা দেখে উল্লাস করছে সে সময়ে –
ফিলিস্তিনে হানাদার ইসরাইলী কাফিররা মুসলমানদেরকে শহীদ করছে,
মিয়ানমারে মুসলমান শহীদ করছে,
চীনে মুসলমানদের পর্দা করতে, দাড়ী রাখতে, রোযা রাখতে বাধা দিচ্ছে,
শ্রীলঙ্কায় মুসলমানের উপর হামলা করছে,
ইংল্যান্ডে পর্দা করার কারণে মুসলিম বোনকে শহীদ করেছে,
ফ্রান্সে পর্দা নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে,
এমনকি বিধর্মীরা খোদ বাংলাদেশেও তারাবীহ নামায পড়তে বাধা তো দিয়েছেই, উল্টা মুসল্লিদের হয়রানী করার জন্য সরকারকে চাপ দেয়!!
কিন্তু মুসলমানের প্রতিবাদ কোথায়?

যে মুসলমান খেলা দেখে উল্লাস প্রকাশ করছে, সে মুসলমান একবারের জন্যও কি কাফিরের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছে?
মুসলমানরা কাফিরের খেলায় উল্লাস প্রকাশ করে কিন্তু মুসলমানরা অপর মুসলমানের কষ্টে কেন ব্যথিত হয় না ?
অথচ মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- “সমস্ত মুসলমান একটি দেহের ন্যায়। পৃথিবীর এক প্রান্তে একজনের দেহে আঘাত লাগলে অন্যপ্রান্তের মুসলমান উনার দেহে তা অনুভুত হবে।”

এই মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার প্রতিফলন কি আমরা মুসলমানদের মাঝে দেখতে পাই?
চারিদিকে এত মুসলমান নির্যাতিত হচ্ছে কিন্তু হারাম খেলায় বুদ হয়ে থাকা মুসলমানরা এর কোনো প্রতিবাদ করছে না। তাহলে তারা কি নিজেদের মুসলমান পরিচয় দিতে পারবে?
মুসলমানের কষ্টে কাঁদেনা যার মন, কিসের সে মুসলমান? কিসের সে আপনজন?
এরাই মুসলমান নামের কলঙ্ক, গুমরাহ, পথভ্রষ্ট ।

Views All Time
2
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে