জিএম ফুড প্রচলনের ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে


আগাছানাশক সহনশীল শস্য ও বিশেষ পোকা বিনাশকারী বিটি শস্য চাষের ফলে রাসায়নিক কীটনাশকের ব্যবহার কমার পরিবর্তে সমস্ত ক্ষেত্রেই তা বেড়ে গিয়েছে। স্বভাবতই উৎপাদিত শস্যে অধিক পরিমাণে কীটনাশকের অবশেষ থেকে যাচ্ছে এবং পরিবেশ দূষণ ঘটছে।
বায়োটেক কোম্পানিগুলির জি এম শস্য চাষের পক্ষে এত প্রচার সত্ত্বেও বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চল নিজেদের জি এম শস্য মুক্ত বলে ঘোষণা করেছে, এখনও করছে। খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ কোম্পানিগুলিও জি এম শস্য বর্জন করেছে। এমনকী, গবাদি পশু ও অন্যান্য প্রাণীরাও জি এম শস্য এড়িয়ে চলছে।
আগাছা সহনশীল জি এম শস্য চাষ করার ফলে সংশ্লিষ্ট জিনটি সম জাতীয় আগাছাতেও ছড়িয়ে পড়েছে এবং সুপার আগাছার উদ্ভব ঘটেছে, যেগুলি নিয়ন্ত্রণ করতে আরও বেশি পরিমাণে অধিক শক্তিশালী আগাছানাশক ব্যবহার করতে হচ্ছে। বিটি শস্যও কয়েক বছরের মধ্যেই তার পোকানাশক ক্ষমতা হারিয়ে ফেলছে। সংশ্লিষ্ট শস্যটি বেশি মাত্রায় বিভিন্ন রকম পোকার দ্বারা আক্রান্ত হয়ে পড়ছে। ফলে, প্রকৃতিতে স্বাভাবিক ভারসাম্য বিঘিœত হচ্ছে ও জৈববৈচিত্র হ্রাস পাচ্ছে।

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে