জ্ঞান-বিজ্ঞান রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা/উদ্ভাবক মুসলমানঃ মুসলমান উনারাই বিজ্ঞানের মূল বা জনক বা আবিষ্কারক-(২১)


গণিতশাস্ত্রে মুসলমান উনাদের শুধুমাত্র অবদান নয়, উনারাই সৃষ্টিকরক/উদ্ভাবক-০৪

দ্বাদশ শতকেও গণিতবিদেরা উনাদের কাজের পস্রা সাজিয়ে একের পর এক আসতে থাকেন যাঁদের মধ্যে ইউনুস সাফ্ফার(?-১০৩৫), জারক্বালী(১০২৯-১০৮৭), ইবনুস্ সামাহ্(?-১০৩৫), ইবন্ আবু রিজাল, ইবনুদ্ দাহ্হান(?-১১৯১) এর নাম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তবে, এদের ছাড়িয়ে যাঁর নাম বেশী উচ্চারিত হয় তিনি হলেন কবি ও দার্শনিক ওমর খৈয়াম(১০৪৮-১১৩১)। বীজগণিতের বহুমাত্রিক সমীকরণের(Multidimentional Equation) উপর তিনি প্রচুর কাজ করেন এবং অনেকদুর এগিয়ে যান। দ্বিপদী উপপাদ্য(Bionomial Theorem) এর উপর উনার এবং অপর মুসলমান বিজ্ঞানী আল-খারাজীর(৯৫৩-১০২৯) অবদান এত বেশী যে, সহজেই উনাদের একজনকে এর কৃতিত্ব দেয়া যেত, যদিও শক্রুতা ও হিংসাবশত: সে কৃতিত্ব গিয়ে জুটেছে বিজ্ঞানী ব্লেইজ্ প্যাস্কেলের(Blaise Pascal; ১৬২৩-১৬৬২) ভাগ্যে।

ত্রয়োদশ শতক হতেই মুসলমান গণিতবিদের মৌলিক কাজের পরিমান কমে যেতে থাকে। এদের মধ্যে কামাল আল-দীন আল-ফারিসী(১২৬৭-১৩১৮), শরফ আল-দীন আল-তুসী(১১৩৫-১২১৩), ইবনুল লুবিদি(১২১০-১২৬৭), জামশেদ আল-কাশী(১৩৮০-১৪২৯) এবং ইবন্‌ আল-শাতীর(১৩০৪-১৩৭৫) গণিত বিষয়ে একাধিক গ্রন্থের রচয়িতা। তবে, নাসিরুদ্দীন আল-তুসী(১২০১-১২৭৪) এদের সকলকে অতিক্রম করেছেন। ‘মারাগাহ্’ মানমন্দিরে বসে তিনি জ্যোতির্বিজ্ঞানের পাশাপাশি গণিতেও উনার অমিত প্রতিভার সাক্ষর রাখেন। আল-বাত্তানীর হাতে আলাদা শাস্ত্র হিসেবে গোড়াপত্তন হওয়া ত্রিকোনমিতি(Trigonometry) তুসীর হাতেই পূর্ণাঙ্গ রূপ লাভ করে। ইউক্লিডের ইলিমেন্টস্ কেন্দ্রিক জ্যামিতি থেকে বেরিয়ে এসে তিনিই প্রথম Non-Euoclidean Geometry এর সূচনা করেন ।কিন্তু উনার কপালের লিখন এবং শক্রুতাবশত সে কৃতিত্ব চলে যায় সপ্তদশ শতকের ইতালীয় বিজ্ঞানী জিওভান্নি জিরোলামো সাচ্চেরীর(Giovanni Girolamo Saccheri; ১৬৬৭-১৭৩৩) কাঁধে! যে আল তুসীর ছাত্র হওয়ারও যোগ্যতা রাখেনা।

তুসীর পরে আর তেমন কোন মুসলমান বিজ্ঞানী গণিতে লক্ষ্যনীয় অবদান রেখেছেন বলে জানা যায় না। স্পেনের আবুল হাসান আলী আল-ক্বালাসাদীকেই(১৪১২-১৪৮৬) মোটামুটিভাবে শেষ মুসলমান গণিতবিদ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

  1. RAJARBAGER POTHERAJARBAGER POTHE says:

    gurottopurno post.dharabahikotar jonno shukriya

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে