টয়লেট থাকলেও মাঠে ছুটছে ভারতীয়রা


স্বচ্ছ ভারত অভিযানের জন্য উঠে পড়ে লেগেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। প্রত্যেক বাড়িতে শৌচাগার থাকতেই হবে এটাই এখন সরকারের অন্যতম মূল উদ্দেশ্য। তবে একটা কথা আছে না ‘আ মরি স্বভাব তো কখনো যাবে না’, এই মাঠে ঘাটে মলত্যাগের স্বভাবটাই কিছুতেই পরিবর্তন করা যাচ্ছে না।

পশ্চিমবঙ্গ থেকে দিল্লি, মন্ত্রী আমলারা মাঠে ঘাটে ছুটে যাচ্ছেন এই কাজ বন্ধ করতে। কিন্তু কে কার কথা শোনে? ঘরে টয়লেট আছে, তবু অনেকেই নাকি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ছুটছেন খোলামাঠে। ফলে কাজ হয়েও সরকারের মনে থেকে যাচ্ছে খুঁতখুঁতুনি ভাব। স্রেফ খারাপ স্বভাবের কাছে হার মানতে হচ্ছে সরকারকে। লোকসভায় প্রকাশিত একটি তথ্যই তার প্রকৃষ্ট উদাহারণ।

বুধবার লোকসভায় বিবৃতি দিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় পানীয় জল ও স্যানিটেশন মন্ত্রণালয়ের রাষ্ট্রমন্ত্রী রমেশ চন্দাপ্পা জিগাজিনাগি জানালেন, এত অভিযানের পরও এখনও দেশের ৪.৪ শতাংশ মানুষ ঘরে টয়লেট থাকা সত্ত্বেও খোলামাঠে যাচ্ছেন প্রাতঃকৃত্য সারতে। ন্যাশনাল স্যাম্পল সার্ভে অফিসের সূত্রেই এই তথ্য উঠে এসেছে তাঁর কাছে। কেন্দ্রের তরফে এও জানানো হয়েছে, ২০১৪ সালের অক্টোবর মাসের পর থেকে সরকার গ্রামে ২১০.৬২ লাখ টয়লেট তৈরি করেছে। নির্মল গ্রাম হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে ৭২,০৯৬টি গ্রামকে। কিন্তু এখন ওই ৪.৪ শতাংশই কেন্দ্রের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে। তাই শুরু করতে হচ্ছে নয়া প্রচারাভিযান।

সূত্র : কলকাতা , কালের কন্ঠ

 

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে