দুনিয়াতে একটি মসজিদ নির্মাণের প্রতিদান যদি জান্নাতের একটি বালাখানা হয়, তাহলে একটি মসজিদ ভাঙার পরিণতি কী হবে?


Picture12
ঢাকায় মেট্রোরেল বানানো হচ্ছে। খুব ভালো কথা। কিন্তু কতজনের জানা আছে যে, এই প্রকল্প বানাতে মোট ২১টি মসজিদ ভাঙ্গা হবে?!
কেউ কেউ মনে করতে পারেন উন্নয়নের জন্য এমনটা করাই যায়। না, যায় না। কোন জায়গা একবার মসজিদের জন্য ওয়াকফ করে দিলে সেই জায়গা আর কোন উদ্দেশ্যেই ব্যবহার করা যায় না।
তাছাড়া সরকার তো ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সম্মান রক্ষার ব্যাপারে খুবই সংবেদনশীল। যার প্রমাণ আমরা দেখেছি যখন…
হাতিরঝিল রাস্তা বানাতে মন্দির না ভেঙ্গে রাস্তা বাকা করে দেয়া হয়েছে,
কামাল স্মরনী রোড নষ্ট করে গির্জা রক্ষা করা হয়েছে,
হিন্দুদের ঘর বাঁচাতে চট্টগ্রামের পুটিয়ার ইন্দ্রপুর মহাসড়ক বাকা করে দেয়া হয়েছে,
হিন্দু বাউলদের বাড়িঘর বাঁচাতে নরসিংদীর শহর রক্ষার বাধের কাজ ৯ বছর আটকে রাখা হয়েছে,
সিলেটে গির্জার দেয়াল বাঁচাতে রাস্তার উন্নয়ন বন্ধ রাখা হয়েছে।
তাহলে আমরা তো আশা করতেই পারি এক মেট্রোরেল বানাতে এতোগুলো মসজিদ না ভেঙ্গে বরং মেট্রোরেলের নকশা পরিবর্তন করা হবে।
ত্রুটি আসলে মুসলমানদেরই। তারা তাদের দাবি জোর গলায় জানাতে জানে না, অধিকারও আদায় করতে পারে না। কিন্তু সবারই মনে রাখা উচিত, মসজিদগুলো যদি সত্যিই ভাঙ্গা হয় তবে এই কাজে যারা জড়িত থাকবে এবং যারা এর প্রতিবাদ না করে নীরব থাকবে বা সমর্থন দেবে তাদের প্রত্যেকের জন্যই জাহান্নামে কঠিন আযাব গজব অপেক্ষা করছে।
মহান আল্লাহ পাক তিনি কিন্তু জানিয়ে দিয়েছেন, “ওই ব্যক্তির চেয়ে বড় যালিম আর কে? যে ব্যক্তি মহান আল্লাহ পাক উনার মসজিদসমূহে উনার যিকির মুবারক করতে, নাম মুবারক উচ্চারণ করতে বাধা দেয় এবং সেগুলোকে উজাড় বা বিরান করতে চেষ্টা করে। এদের জন্য ভীত-সন্ত্রস্ত অবস্থায় অর্থাৎ খালিছ তওবা-ইস্তিগফার করা ব্যতীত মসজিদসমূহে প্রবেশ করা জায়িয নেই। তাদের জন্য রয়েছে ইহকালে লাঞ্ছনা এবং পরকালে কঠিন আযাব বা শাস্তি।” (সূরা বাক্বারা শরীফ: ১১৪)
Views All Time
1
Views Today
3
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে