দেউলিয়া হওয়ার আশঙ্কায় গ্রিস


আবারো শিরোনামে গ্রিস? আশঙ্কা করা হচ্ছে, যে সে দেশ দেউলিয়া হয়ে যেতে পারে? গ্রিসের পরিস্থিতি এবং গ্রিসকে ঘিরে বাকিদের সমস্যা এখন মারাত্মক আকার ধারণ করেছে? এই অবস্থায় জোরালো তৎপরতা শুরু হয়ে গেছে?গ্রিসে যখন আর্থিক সংকট শুরু হয়েছিল, তখন ইউরোপীয় নেতারা তার সমাধানসূত্র খোঁজার চেষ্টা শুরু করেছিলো? তাদের উদ্যোগে ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইসিবি ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফ’ও সেই উদ্ধার কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছে? বেসরকারি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোও গ্রিসকে কিছু ছাড় দিচ্ছে? তাদের সঙ্গেও আলোচনা জারি রয়েছে?

গ্রিসে সরকার বদল হয়েছে? নতুন প্রধানমন্ত্রী লুকাস পাপাদেমস একজন আর্থিক বিশেষজ্ঞ? সে তিনটি প্রধান রাজনৈতিক দলের সমর্থন নিয়ে আন্তর্জাতিক আর্থিক সাহায্যের শর্তগুলি পূরণ করার চেষ্টা করে চলেচ্ছে? কিন্তু বাস্তবে দেখা যাচ্ছে, তার যাবতীয় প্রচেষ্টা সত্ত্বেও আর্থিক সাহায্যের শর্তগুলি পূরণ করা যাচ্ছে না? লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে হলে যে পরিমাণ ব্যয় সংকোচ করতে হবে, তার পরিণাম মারাত্মক হতে পারে? প্রবল চাপ আসছে ইসিবি ও আইএমএফ’র তরফ থেকেও? পাপাদেমস সোমবারই প্রায় ১৫ হাজার সরকারি কর্মীকে বরখাস্ত করেছে বলে জানিয়েছে? এছাড়াও, দেউলিয়া শঙ্কট থেকে বাঁচতে ন্যুনতম মজুরি কমানোসহ তাকে আরো কিছু অনেক অপ্রিয় সিদ্ধান্তও নিতে হবে?

 

 

সূত্র : আমাদের সময় 09.02.2012

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+