দৈনিক আল ইহসান শরীফ উনার আহ্বান


বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে ‘মিডিয়া’ একটি বহুল আলোচিত বিষয়। কারণ এই মিডিয়ার বদৌলতেই মানুষ তথ্য-সংবাদ ইত্যাদি জানতে পারছে। কিন্তু অত্যন্ত বেদনাদায়ক সত্য হলো- বর্তমান বিশ্বে একচেটিয়াভাবে কাফির, মুশরিক, মুনাফিক তথা দ্বীন ইসলাম বিদ্বেষী, মুসলমান বিরোধী মিডিয়াগুলো প্রভাব বিস্তার করে আছে। বিপরীতে মুসলমানদের পক্ষে কথা বলার, দ্বীন ইসলাম উনার শান-শওকত ফুটিয়ে তোলার কোনো মিডিয়া নেই বললেই চলে।
বর্তমানে প্রচলিত মিডিয়াগুলোতে প্রচারিত হয় বিনোদনের নামে অশ্লীল-অশালীনতা, প্রচারিত হয় খেলাধূলাসহ নানা রকম অপ্রয়োজনীয় ও মুসলমানদের চরিত্র বিধ্বংসী নানারকম চটকদার সংবাদ।
সবচেয়ে ভয়ানক ব্যপার হলো, এইসব মিডিয়াগুলো নানা ছলচাতুরী আর কুটকৌশলে দ্বীন ইসলাম উনার বিরুদ্ধেও প্রচারণা চালাচ্ছে, যেমন- বাল্যবিবাহ। নাউযুবিল্লাহ!
এহেন পরিস্থিতিতে মুসলমানদের জন্য একটি শক্তিশালী মিডিয়া গড়ে তোলার মহান উদ্যোগ নিয়েছেন মুজাদ্দিদে আযম রাজারবাগ শরীফ উনার মহাসম্মানিত মুুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি। সুবহানাল্লাহ! প্রতিষ্ঠা করেছেন “দৈনিক আল ইহসান শরীফ”।
এই দৈনিক আল ইহসান শরীফে আপনি যেমন পাবেন দেশের সব ধরণের সংবাদ ও তথ্য, তেমনি পাবেন একজন মুসলমান কি করে এইসব তথাকথিত মিডিয়ার নাগপাশ ছেড়ে পরিপূর্ণভাবে দ্বীন ইসলাম উনার দিকে রুজু হতে পারে।
তাইতো দ্বীন ইসলাম উনার বিশেষ বিশেষ দিবসসমূহে দৈনিক আল ইহসান শরীফে বের করা হয় ‘বিশেষ সংখ্যা’। যেখানে আপনি বিশেষ দিবস সংশ্লিষ্ট প্রয়োজনীয় ইলম (জ্ঞান) আপনি অর্জন করার খোরাক পাবেন।
এককথায় বর্তমান বিশ্বে দ্বীন ইসলাম উনার এবং মুসলমানদের একমাত্র বিশ্বস্ত মিডিয়ার ভূমিকায় পরিপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে “দৈনিক আল ইহসান শরীফ”। সুবহানাল্লাহ!
তাই সকল মুসলমানদেরই উচিত- নিয়মিত দৈনিক আল ইহসান শরীফে চোখ রাখা এবং এর প্রচার-প্রসারের দায়িত্ব গ্রহণ করা। পাশাপাশি বিজ্ঞাপনসহ অন্যান্যভাবে আর্থিক খিদমতে অংশগ্রহণ করে সদকায়ে জারিয়ার নেকীতে নিজেকে শরীক রাখা। আমিন।

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে