দ্বীনে হক্ব উনার ঝাণ্ডা বুলন্দকরণে হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার সুযোগ্য সুমহান উত্তরসূরি হযরত মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম


খালিক্ব মালিক মহান রব আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার প্রিয়তম হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা যুগে যুগে কিংবা প্রতি শতকে কিংবা সহস্রে, অর্ধসহস্রে এমন এমন ওলীআল্লাহ, গাউছ, কুতুব, মর্দে মুজাহিদ, মুজাদ্দিদ, রাহবার আজমাঈন উনাদেরকে প্রেরণ করেন। মূলত উনাদের মুবারক উসীলায় ফিতনা ফাসাদে আক্রান্ত পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাকে স্বমহিমায় জাগিয়ে তুলেন। উনাদের মুবারক তাজদীদী উসীলায় পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার ঝা-াকে বুলন্দ করে দুনিয়া মাঝে জারি করে দেন। এরই ধারাবাহিকতায় হিজরী হাজার শতকের শেষে মোঘল বাদশাহদের যুগে তাশরীফ আনেন ইমামে রব্বানী, কাইয়্যুমে আউওয়াল সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি। বাদশাহ গং দ্বারা, উলামায়ে ‘সূ’ গং দ্বারা, ফাসিক-ফুজ্জার মতলববাজ গং দ্বারা যতপ্রকার বিদয়াত-বেশরা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছিল তার সবই তিনি তাজদীদী প্রতাপে মূলোৎপাটন করে পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার নিশানাকে বুলন্দ করে জারি করে দেন। সুবহানাল্লাহ!
সময়ের ধারাবাহিকতায় উনার সুমহান তাজদীদীকাল আজ প্রায় অর্ধসহস্র বৎসরকাল অতিবাহিত। এরই মধ্যে আবারো ইবলিস শয়তানের প্রতারণা, ইহুদী-নাছারা-মুশরিকদের ছলচাতুরী, চক্রান্ত এবং দুনিয়াদার ফাসিক-ফুজ্জার শাসকগোষ্ঠী ও তাদের পদলেহনকারী ধর্মব্যবসায়ী উলামায়ে সূ’দের অপতৎপরতায় মিল্লাতে মুসলিমায় কালো মেঘের উদ্ভব ঘটেছে। পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার বিরোধী হারাম ছবি তোলা, হারাম বেপর্দা হওয়া, হারাম গান-বাদ্য করা, হারাম টিভি দেখা, হারাম তন্ত্রমন্ত্র করা, হারাম বিধর্মী বিজাতি সাদৃশ্য গ্রহণ করাকে ওরা ধর্মের কর্ম বলে মুরতাদী প্রচারণা শুরু করেছে। নাউযুবিল্লাহ!
সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার সময়ে দ্বীনে হক্ব উনাকে যালিম শাসকদের আদলে গড়ে তোলার অপচেষ্টা হলেও বর্তমান যামানায় দ্বীনে হক্বের বিকৃতিতে যালিম শাসকগোষ্ঠী, উলামায়ে সূ’দের সাথে সমান পাল্লা দিয়ে মুসলমান নামধারী আম জনতা তারাও মাঠে নেমেছে। অর্থাৎ বর্তমান যামানায় দ্বীনে হক্ব উনার বিকৃতিকে কুফরী অপশক্তি তৃণমূল পর্যায়ে নিয়ে গেছে। নাউযুবিল্লাহ!
পবিত্র দ্বীন ইসলাম এবং মিল্লাতে মুসলিমা উনাদের এই কঠিন দুর্যোগে খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার প্রিয়তম হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা বেমেছাল কারামত বুযুর্গী বিলায়েত-কামালতসহ প্রেরণ করেছেন যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনাকে। তিনি মূলত তাজদীদী ধারাবাহিকতায় কাইয়্যুমে আউওয়াল, ইমামে রব্বানী সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আলফে ছানী রহমতুল্লাহি আলাইহি উনারই সুযোগ্য এবং সুমহান উত্তরসূরি। সুবহানাল্লাহ!
অতএব, প্রত্যেক মর্দে মু’মিন মুসলিম উনাদেরকে দ্বীনে হক্ব উনার ঝা-া বুলন্দকরণে সাইয়্যিদুনা হযরত মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার তাজদীদী নিশানতলে ঐক্যবদ্ধভাবে শামিল হতে দ্রুত এগিয়ে আসতে হবে- এটাই বর্তমান সময়ের দাবি।

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে