দ্বীন ইসলাম উনার গুরুত্বপূর্ণ একমাত্র অর্থনৈতিক স্তম্ভ পবিত্র যাকাত


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,

‘তোমরা নেকী ও পরহেযগারীতে পরস্পর পরস্পরকে
সাহায্য-সহযোগিতা করো। পাপ ও নাফরমানির
মধ্যে সাহায্য-সহযোগিতা করো না।’

সম্মানিত শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে-পবিত্র যাকাত দেয়া যেরূপ ফরয;
তদ্রুপ সঠিক স্থানে পবিত্র যাকাত দেয়াও ফরয এবং
পবিত্র যাকাত কবুল হওয়ার কারণ।

পবিত্র যাকাত দেয়ার উত্তম ও সঠিক স্থান হলো-
‘রাজারবাগ দরবার শরীফস্থ মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদরাসা ও ইয়াতীমখানা’।

উল্লেখ্য, মহাসম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার নামে রাজনৈতিক
ফায়দা হাছিলকারী, সন্ত্রাসবাদী, মৌলবাদী, হরতাল-লংমার্চকারী
উলামায়ে ‘সূ’ বা ধর্মব্যবসায়ীদের মাদরাসায় এবং কোয়ান্টামে, কাফির
নালায়েকদেরকে পবিত্র যাকাত দিলে পবিত্র যাকাত তো আদায় হবেই না; বরং
কবীরা গুনাহে গুনাহগার হবে।

কারণ এদেরকে পবিত্র যাকাত দেয়ার অর্থ হলো-
সন্ত্রাসবাদ, মৌলবাদ ও হারাম কুফরী মতবাদ বিস্তারে সাহায্য
সহযোগিতা করা; যা মহাসম্মানিত ইসলামী শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে সম্পূর্ণই হারাম ও কুফরী।

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে