নারীবাদীদের’নারী স্বাধীনতা’ সন্মানীত মুসলিম নারীদের স্বাধীনতার পথে অন্তরায় ।


নারীবাদীদের’নারী স্বাধীনতা’ সন্মানীত মুসলিম নারীদের স্বাধীনতার পথে অন্তরায় । কারন নারীবাদীরা ‘নারী সবাধীনতার’ যে স্লোগান দিচ্ছে তা হোল নারী পুরুষ সকলেই সমান । কিন্তু মহান আল্লাহ পাক তিনি পুরুষকে কর্তা হিসাবে পাঠিয়েছেন । গঠনগত ভাবে , স্বভাবগত ভাবে , মানুষিক দিক দিয়ে , শক্তির দিক দিয়ে এক কথায় সমস্ত দিক দিয়ে নারী পুরুষের পার্থক্য রয়েছে । একজন পুরুষ কে তার স্ত্রী পুত্র কন্যা সকলের ভরন পোষণের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে । কিন্তু নারীকে সে দায়িত্ব দেয়া হয়নি । তা হলে নারীবাদীরা কি করে নারী পুরুষ সমান দাবী করে ? আর নারীবাদীরা যদি খাওয়া পরার সমান অধিকারের কথা বলেন তা হলে বলতে হয় যে, সে অধিকার তো মহান আল্লাহ পাক তিনি ই দিয়েছেন । মহান আল্লাহ পাক  তিনি এরশাদ মুবারক করেছেন , ”هُنَّ لِبَاسٌ لَّكُمْ وَأَنتُمْ لِبَاسٌ لَّهُنَّ” অর্থাৎ তারা (মহিলারা) তোমাদের পোশাক এবং তোমরা তাদের পোশাক । এই আয়াত শরিফ মুয়ারক দ্বারা স্বামী স্ত্রী উভয়ের সমান অধিকারের কথা  বলেছেন । স্বামী নিজে যেমন খাবেন, পরবেন তেমনি স্ত্রী ও সন্তানদের কে তেমন খাওয়াবেন পরাবেন । সুতরাং এটা নিয়ে নারীবাদীদের নতুন করে সমান অধিকারের কথা বলে মুসলমান উনাদের ধোঁকা দেয়ার কোন প্রয়োজন নেই । নারীবাদীরা আরও যে কাজ করছে সেটা হোল নারী স্বাধীনতার নামে মুসলিম মহিলাদের পর্দা ছাড়িয়ে বেপর্দা করে নারী পুরুষের একত্রে কাজ করার জন্য উৎসাহিত করছে । যার ফলে ঘর ভাঙ্গা ,এসিড নিক্ষেপ , পরকিয়া ধর্ষণ ইত্যাদি ফেতনা ফাসাদ এর সৃষ্টি হয় । আর মহান আল্লাহ পাক তিনি এরশাদ মুবারক করেছেন , ফেতনা ফাসাদ কতলের চেয়েও ভয়ংকর ” । সুতরাং নারীবাদীদের নারী স্বাধীনতার ধোঁয়া মুসলিম নারীদের জন্য কত ভয়ঙ্কর তা বলার অপেক্ষা রাখে না । তাই মুসলিম নারী সমাজ সাবধান । নারীবাদীদের ধোঁকায় পড়ে নিজের ইজ্জত ঈমান বিক্রি কবেন না । প্লীজ ।

 

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে