নারী নির্যাতন ও যৌতুকের মামলা ৯০ ভাগই মিথ্যা; বললেন আইন প্রতিমন্ত্রী


ইসলামে প্রাণীর ছবি হারাম। তাই ছবিটি মুছে ফেলা হয়েছে। – সবুজ বাংলা কর্তৃপক্ষ

নারী নির্যাতন ও যৌতুকের বিরুদ্ধে দায়ের করা ৯০ ভাগ মামলাই মিথ্যা বলে মন্তব্য করেছেন আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। সেই সঙ্গে মিথ্যা মামলা দায়েরকারীর বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান করার কথা বলেন তিনি।
শনিবার সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে আইন বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ফৌজদারি কার্যবিধির সংশোধন বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘বিদেশে ১০০ ভাগ মামলার সাজা হয় আর আমাদের দেশে ১০-২০ ভাগ মামলার সাজা হয়। আমাদের দেশে এতো মিথ্যা মামলা বিচারের জন্য যাচ্ছে যে এর সাজার পরিমাণ খুব কম।ফলে মিথ্যা মামলার প্রবণতা না কমাতে পারলে ফৌজদারি কার্যবিধি সংশোধন করেও কোনো লাভ হবে না বলে তিনি উল্লেখ করেন।
মিডিয়া ট্রায়াল না করার জন্য মিডিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়ে কামরুল বলেন, ‘পর্দার আড়ালে যে মেয়ে একবার ধর্ষিত হয়, মিডিয়ার কারণে সেই মেয়ে তার পরিবারসহ আরও ১০ বার ধর্ষিত হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘মামলার সুষ্ঠু ও দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য পৃথক তদন্ত সেল গঠন করতে হবে। যারা আইনশৃঙ্খলা রক্ষার কাজে নিয়োজিত থাকেন তারাই আবার তদন্ত করেন। ফলে তদন্ত সুষ্ঠুভাবে সময়মতো শেষ করা যায় না।’
প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইনমন্ত্রী ব্যরিস্টার শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘সমাজ পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে অপরাধ পরিবর্তনের ধরনও বদলে গেছে। সেজন্য বিচার ব্যবস্থারও পরিবর্তন করতে হবে।’
সেমিনারে আরও বক্তৃতা করেন আইনসচিব মো.শহীদুল হক, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম প্রমুখ। সেমিনারে আইনজীবী, বিভিন্ন এনজিওর প্রতিনিধিসহ বিচার প্রক্রিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত আছেন।

সুত্রঃ নতুন খবর.কম

শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+