নিরীহ মুসলমানকে শহীদসহ মসজিদ মাদরাসা জ্বালিয়ে দিচ্ছে ওই কুখ্যাত মিয়ানমারের বৌদ্ধ প্রশাসন


হিংস্র বৌদ্ধরা মুসলিম হত্যায় মেতে উঠেছে। মুসলমান উনাদের ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়া, তাদের কাছে পুতুল খেলার ন্যায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। মসজিদ, মাদরাসাগুলোকে নিশ্চিন্ন করে দিতে তারা বেপরওয়া। হাজার হাজার মুসজিদ, মাদরাসা জ্বালিয়ে পুড়িয়ে ছারখার করে দেয়। লক্ষ লক্ষ মুসলমান পুরুষ মহিলাকে নির্বিচারে শহীদ করে যাচ্ছে। মুসলমান মহিলা উনাদের সম্ভ্রমহানী করাটা কুখ্যাত যালিম মিয়ানমারের বৌদ্ধদের কাছে নেশায় পরিণত হয়েছে। এসব লোমহর্ষক ভয়াল অস্বাভাবিক খবর আর গোপন নেই। পুরো বিশ্বেই জানানো হচ্ছে। কিন্তু এর কোনো প্রতিকার নেই। আফসোস মুসলিম জনগোষ্ঠি নিশ্চুপ। পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, পৃথিবীর পশ্চিমে এক মু’মিনের গায়ে ব্যাথা দিলে পূর্ব দিকে মু’মিনের গায়ে সেই ব্যাথা অনুভব করে।
হায়! এখন কি বিশ্বের সোয়া তিনশত কোটি মুসলমান উনাদের দেহ ও দিলে কী মিয়ানমারের মুসলিম উনাদের ব্যাথা অনুভব হয় না? তাহলে কী হাক্বীক্বতে মুসলমান অপ্রতুল?
বিশ্ব মুসলিম প্রশাসনসহ আওয়ামুন্নাছের নিকট মাঝে এই প্রশ্নই রইলো।

Views All Time
1
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে