“নিশ্চয়ই যারা ঈমান এনেছেন এবং নেক আমল করেছেন উনাদের জন্য জান্নাতে মেহমানদারী করা হবে।”


আক্বীদা  বা ঈমান হচ্ছে –সমস্ত কিছুর মূল । যার আক্বীদায় বিন্দুমাত্র ত্রুটি  বা ভুল থাকবে অর্থাৎ কুফরী থাকবে, তার কোন আমলই আল্লাহ পাক উনার দরবারে কবুল হবেনা। তাই  মহান আল্লাহ পাক পবিত্র কুরআন শরীফ উনার অসংখ্য স্থানে আমলের পূর্বে ঈমান উনার কথা বলেছেন।

মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন,

ان الذين امنوا وعملوا الصا لحات كانت لهم جنت الفردوس نزلا

অর্থঃ-“নিশ্চয়ই যারা ঈমান এনেছেন এবং নেক আমল করেছেন উনাদের জন্য জান্নাতে মেহমানদারী করা হবে।”

অতএব, জান্নাত লাভ করতে হলে বা মহান আল্লাহ পাক উনার রেজামন্দী হাছিল করতে হলে সর্ব প্রথম ঈমান বা আক্বীদা বিশুদ্ধ করতে হবে। অতঃপর নেক আমল করতে হবে। যার আক্বীদা বিশুদ্ধ নয় এবং কিছুমাত্র কুফরী রয়েছে, তার নেক আমলের কোন মূল্য  নেই। উপরন্ত কুফরী আক্বীদা থাকার কারণে সে চির জাহান্নামী হবে। আর যার আক্বীদা বিশুদ্ধ রয়েছে, সে যদি নেক আমল নাও করে থাকে, সে চির জাহান্নামী হবেনা।  তার পাপের  শাস্তি ভোগ করে অবশ্যই একদিন সে জান্নাতে যাবে।

th_020

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে