নিশ্চয়ই সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি সম্মানিত জান্নাতবাসী উনাদের বাতী তথা আলোকবর্তীকা


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে,
قال حضرت علي عليه السلام سمعت النبي صلى الله عليه وسلم يقول حضرت عمر بن الخطاب عليه السلام سراج أهل الجنة فبلغه ذلك فقال أنت سمعت هذا من رسول الله قال نعم قال اكتب لي خطك فكتب بعد البسملة هذا ما ضمن حضرت علي بن أبي طالب عليه السلام لحضرت عمر بن الخطاب عليه السلام عن النبي صلى الله عليه وسلم عن ربه عز وجل أن حضرت عمر بن الخطاب عليه السلام سراج أهل الجنة فأخذها حضرت عمر عليه السلام وقال اجعلوها في كفني حتى ألقى بها ربي ففعلوا.
অর্থ: “সাইয়্যিদুনা হযরত র্কারামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, আমি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে ইরশাদ মুবারক করতে শুনেছি যে, সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি সম্মানিত জান্নাতবাসী উনাদের সিরাজ তথা আলোকবর্তীকা। তারপর সাইয়্যিদুনা হযরত র্কারামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম তিনি সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার নিকট সেই সম্মানিত সংবাদ মুবারক পৌঁছালেন। অতঃপর সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি সাইয়্যিদুনা হযরত র্কারামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম উনাকে বললেন, আপনি কি এ বিষয়টা নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার থেকে শুনেছেন। তিনি বললেন, হ্যাঁ। তখন সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি সাইয়্যিদুনা হযরত র্কারামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম উনাকে বললেন, আপনি আপনার সম্মানিত হাত মুবারক-এ আমার জন্য এ বিষয়টা লিখে দিন। অতঃপর সাইয়্যিদুনা হযরত র্কারামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম তিনি লিখলেন, “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম। এটা ঐ বিষয় যা সাইয়্যিদুনা হযরত র্কারামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার থেকে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি মহান আল্লাহ পাক উনার থেকে সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার জন্য নিশ্চয়তা দিয়েছেন। নিশ্চয়ই সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি সম্মানিত জান্নাতবাসী উনাদের সিরাজ তথা আলোকবর্তীকা। তারপর সাইয়্যিদুনা হযরত ফারুকে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি সেটা গ্রহণ করলেন এবং বললেন, আপনারা লিখিত বিষয়টা আমার সম্মানিত কাফন মুবারক উনার মধ্যে দিয়ে দিবেন যাতে তা দ্বারা আমি আমার সম্মানিত রব মহান আল্লাহ পাক উনার সাথে সাক্ষাৎ করতে পারি। অতঃপর উনার (অনুরূপই) করলেন। সুবহানাল্লাহ!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে