নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত তরফ থেকে পবিত্র কুরবানী করা প্রত্যেক উম্মতের জন্য দায়িত্ব ও কর্তব্য।


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে,

عن حضرت حنش رحمة الله عليه قال رآيت عليا يضحى بكبشين فقلت له ما هذا قفال ان رسول الله صلى الله عليه وسلم اوصانى ان اضحى عنه فانا اضحى عنه

অর্থ:- “বিশিষ্ট তাবিয়ী হযরত হানাশ রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি বলেন, আমি হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম উনাকে দুটি দুম্বা কুরবানী করতে দেখলাম। আমি জিজ্ঞাসা করলাম, দুটি কেন? তিনি বলেন, নিশ্চয়ই নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি আমাকে ওছীহত মুবারক করেছেন, যেন আমি উনার পক্ষ থেকে কুরবানী মুবারক করি। তাই আমি উনার পক্ষ থেকে একটি (এবং আমার পক্ষ থেকে একটি) কুরবানী করলাম।” সুবহানাল্লাহ! (আবু দাউদ শরীফ, তিরমিযী শরীফ, মিশকাত শরীফ)

উপরোক্ত পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে যদিও খাছভাবে সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহস সালাম উনাকে ওছীয়ত মুবারক করা হয়েছে। তবে আমভাবে সকলের জন্যই তা প্রযোজ্য। কেননা ইমামুল আউওয়াল মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম তিনি হচ্ছেন-

#প্রথমতঃ তিনি সম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিস সালাম উনাদের অন্যতম বিশেষ ব্যক্তিত্ব মুবারক। সেজন্য উনাকে অনুসরণ করা উম্মতের জন্য ফরয-ওয়াজিব।

পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত আছে- ছাহাবী হযরত আবূ যর গিফারী রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। তিনি একদা পবিত্র কা’বা শরীফ উনার দরজা মুবারক ধারণ করে বললেন, আমি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে বলতে শুনেছি- সাবধান! আমার সম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা হলেন তোমাদের জন্য হযরত নূহ আলাইহিস সালাম উনার কিস্তী বা নৌকার ন্যায়। যে তাতে আরোহণ করবে সে রক্ষা পাবে। আর যে তা হতে ফিরে থাকবে সে ধ্বংস হবে। (মুসনাদ আহমাদ বিন হাম্বল)

#দ্বিতীয়তঃ তিনি সম্মানিত হযরত খুলাফায়ে রাশিদীন আলাইহিমুস সালাম উনাদের চতুর্থ খলীফা। আর সম্মানিত হযরত খুলাফায়ে রাশিদীন আলাইহিমুস সালাম উনাদের অনুসরণ করা উম্মতের জন্য ওয়াজিব।

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার সুন্নত মুবারক এবং সুপথপ্রাপ্ত হযরত খুলাফায়ে রাশিদীন আলাইহিমুস সালাম উনাদের সুন্নত মুবারক পালন করা তোমাদের (উম্মতদের) উপর ওয়াজিব।’

মোদ্দাকথা, ইমামুল আউওয়াল মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহু আলাইহিস সালাম উনাকে সম্মানিত ওছীয়ত মুবারক করার মাধ্যম দিয়ে প্রত্যেক উম্মতকে শিক্ষা দেয়া হয়েছে যে, সকলেই যেন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পক্ষ থেকে পবিত্র কুরবানী করে। যা উম্মতের জন্যে নাযাতের ও পবিত্র কুরবানী কবুল হওয়ার উসীলা হবে। সুবহানাল্লাহ!

আর সেজন্যই যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, আহলু বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি প্রতিবছর নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার এবং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত হযরত আব্বা আলাইহিস সালাম এবং সম্মানিত হযরত আম্মা আলাইহাস সালাম, হযরত উম্মাহাতুল মু’মিননীন আলাইহিন্নাস সালাম, সম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের এবং সমস্ত হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম, হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তা’য়ালা আনহুম এবং হযরত আউলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিম সহ প্রায় ১০ লক্ষ (দশ লক্ষ) সম্মানিত নাম মুবারক রয়েছেন, উনাদের সম্মানিত তরফ থেকে শত শত গরু-মহিষ, খাসি-বকরী পবিত্র কুরবানী করে থাকেন। সুবহানাল্লাহ্

মহান আল্লাহ পাক তিনি প্রত্যেক উম্মতকেই নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত তরফ থেকে পবিত্র কুরবানী করার তাওফীক দান করুন। আমীন!

Views All Time
1
Views Today
1
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে