নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কর্তৃক পবিত্র মিরাজ শরীফে সুদখোরের কঠিন পরিণতি অবলোকন


রজবুল হারাম বা সম্মানিত রজব মাসের ২৭ তারিখ মি’রাজুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সংঘটিত হয়েছে।  আখিরী নবী, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি এ মি’রাজ শরীফ-এই মহান দীদারে ইলাহীতে হাদিয়াস্বরূপ নামায লাভ করেছেন। এ নামাযই হচ্ছে মু’মিনের মি’রাজ শরীফ। সুবহানাল্লাহ!

আখিরী নবী,নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি যখন পবিত্র মি’রাজ শরীফ-এ গমন করেন তখন তিনি জান্নাত ও জাহান্নাম পরিদর্শন করেন। তিনি যখন জাহান্নাম পরিদর্শন করেন তখন কতিপয় লোকের পাপের শাস্তি নিজ চোখ মুবারক-এ অবলোকন করেন। যা হাদীছ শরীফসমূহে স্পষ্টভাবে বর্ণিত হয়েছে।

সুদখোরের শাস্তি:
হযরত আবু হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। রসূলে পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ করেন, মি’রাজ শরীফ-এর রাতে এমন কতিপয় লোক দেখতে পেলাম, যাদের পেট এত বড় ছিল যে দেখতে মনে হয় যেন মানুষের বসবাসের ঘর। তার মধ্যে ছিল সাপ যা বাহির থেকে তাদের পেটে দেখা যেত। আমি হযরত জিরবীল আলাইহিস সালাম উনাকে জিজ্ঞাসা করলাম, এরা কারা? তিনি বললেন, এরা হলো সুদখোর। নাউযুবিল্লাহ!

Views All Time
2
Views Today
2
শেয়ার করুন
TwitterFacebookGoogle+